রাজাপুরে পাঁকা স্থাপনা নির্মান করে খাল দখলের অভিযোগ

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজাপুরের সাংগর-জালিয়াবড়ি সড়কের সাংগর ব্রীজ এলাকার বাড়ানি সরকারি খাল দখল করে স্থায়ী পাকা স্থাপনা নির্মানের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় মো. নুর হোসেন খানের বিরুদ্ধে। প্রশাসনের নাকের ডগায় খাল ভরাট করে এমন নির্মানযজ্ঞ চললেও অজ্ঞাত কারনে স্থানীয় প্রশাসন নিরবতা ভূমিকা পালন করছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। নুর হোসেন খান উপজেলার শুক্তাগড় ইউনিয়নের সাংগর গ্রামের মৃত আসাদ খানের ছেলে। সরেজমিনে গিয়ে অভিযোগ পাওয়া গেছে, নুর হোসেন এলাকায় জমি ক্রয় করে বাড়ি নির্মাণ করেছে। তার বাড়ির সামনের পূর্ব পাশে রাস্তার অপর প্রান্তে খালের মধ্যে থেকে ১০ ইঞ্চি পাকা দেয়াল নির্মানের শুরু করে প্রায় রাস্তা সমান করে ফেলেছেন। এরপর ওই দেয়ালে দোকান ঘর নির্মান করবেন। এছাড়াও পাশেই খালের মধ্যে নির্মাণ করা হয়েছে ব্যক্তিগত ঘাটলা। যার ফলে পানি চলাচলে বিঘœ সৃষ্টি হয়ে নৌকা চলাচল বন্ধ হওয়ার উপক্রম। স্থানীয়দের অভিযোগ, সরকার যেই মূহুর্তে সারাদেশে খাল দখল মুক্ত করছে। ঠিক সেই সময় এ উপজেলায় শহরে একের পর এক খাল দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মাণে মেতে উঠেছে ভূমিদস্যুরা। একজনের খাল দখল দেখে পরের দিন অন্য ব্যক্তিরা খাল দখলে উৎসাহিত হচ্ছে, প্রশাসন নিরব থাকায়। এদের বিরেুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া জরুরী হয়ে পরেছে বলে স্থানীয়দের দাবি। তবে অভিযুক্ত মো. নুর হোসেন খান দাবি করেন, পাড় ভেঙে যাচ্ছে তাই বাধ দিয়ে তা ঠেকানো হচ্ছে। রাজাপুরে ইউএনও মোক্তার হোসেন জানান, সরকারি খাল দখল করে যদি কোন ব্যক্তি অবৈধ ভাবে ওয়াল নির্মাণ করে বা স্থাপনা নির্মান করে সেটি থাকবে না ভেঙ্গে ফেলা হবে। খোজ নিয়ে ওই স্থানের অবৈধ খাল দখলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

কেরানীগঞ্জে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ‘ডাকাত’ নিহত

কেরানীগঞ্জে ডিবি পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে গুলিবিব্ধ হয়ে অজ্ঞাতপরিচয় (২৫) ডাকাত নিহত হয়েছেন। রোববার দিবাগত …

error: Content is protected !!