এইচএসসি’র নম্বর নির্ধারণে নীতিমালা তৈরি হয়নি

 

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় নম্বর নির্ধারণে নীতিমালা এখনো তৈরি করতে পারেনি টেকনিক্যাল কমিটি। তবে খসড়া নীতিমালা তৈরির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। খুব শিগগিরই সেটি গ্রেড মূল্যায়ন কমিটি’র কাছে পাঠানো হবে। এরপর তারা সেটি যাচাই-বাছাই করে শিক্ষামন্ত্রীর কাছে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য পাঠাবেন। শিক্ষামন্ত্রীর অনুমোদন পেলে রেজাল্ট প্রকাশ করা হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, খসড়া নীতিমালায় জেএসসিতে প্রাপ্ত জিপিএ’র ২৫ শতাংশ এবং এসএসসিতে প্রাপ্ত জিপিএ’র ৭৫ শতাংশ নম্বর নিয়ে এইচএসসি’র রেজাল্ট তৈরির প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। যাদের জেএসসি ছিল না, তাদের ক্ষেত্রে এসএসসিতে প্রাপ্ত জিপিএ’র শতভাগ নম্বর নিয়ে রেজাল্ট দেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গ্রেড মূল্যায়ন কমিটির সদস্য সচিব ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, ফলাফল তৈরির জন্য এখনো কারিগরি টিম কাজ করে যাচ্ছে। কীভাবে রেজাল্ট দেয়া হবে তার একটি খসড়া নীতিমালা তৈরির কাজ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সেটি নিয়ে খুব শিগগিরই গ্রেড মূল্যায়ন কমিটি বৈঠকে বসবে। সেখানে যাচাই-বাছাই শেষে চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য নীতিমালা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে।

কবে নাগাদ রেজাল্ট প্রকাশ করা হবে? জানতে চাইলে তিনি আরও বলেন, ফলাফল তৈরির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে। কাজ শেষ হলে সেটি সবাইকে জানিয়ে দেয়া হবে।

প্রসঙ্গত, করোনার কারণে এবছর জেএসসি এবং এসএসসি পরীক্ষার রেজাল্টের ওপর ভিত্তি করে এইচএসসিতে অটোপাস দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। রেজাল্ট তৈরির জন্য একটি জাতীয় পরামর্শক কমিটি তৈরি করে মন্ত্রণালয়। তাদের পরামর্শে ফলাফল তৈরির জন্য গ্রেড মূল্যায়ন কমিটি কাজ করছে। এই কমিটির আহবায়ক করা হয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হক খানকে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

জাককানইবি’র সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

  মো ফাহাদ বিন সাঈদ, জাককানইবি প্রতিনিধি ;জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) সমাজবিজ্ঞান …

error: Content is protected !!