একুশে বইমেলা স্থগিত, অনলাইনে আয়োজনের প্রস্তাব

 

 

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতিতে আগামী বছরের একুশে বইমেলা স্থগিত করেছে বাংলা একাডেমি। শুক্রবার এক সভায় তারা এ সিদ্ধান্ত নেয়। তবে বাংলা একাডেমি এবারের বইমেলা অনলাইনে আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে।

বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক, কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী দেশ রূপান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

হাবীবুল্লাহ সিরাজী শুক্রবার রাতে আরো বলেন, করোনাভাইরাসের বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের পক্ষে সামাজিক দূরত্ব রেখে বইমেলা আয়োজন সম্ভব নয়। সে জন্য ২০২১ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলা স্থগিত করেছি। তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ।

তিনি দেশ রূপান্তরকে বলেন, আমরা কর্তৃপক্ষকে ভার্চুয়াল বইমেলা আয়োজনের প্রস্তাব দেব। তারা এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। তবে কীভাবে অনলাইনে বইমেলা করা হবে সে বিষয়ে পরে চূড়ান্ত পরিকল্পনা করব।

প্রতিবছর ফেব্রুয়ারিতে মহান ভাষা আন্দোলনের স্মরণে বাংলা একাডেমির পক্ষ থেকে আয়োজন করা হয় বইমেলা। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের একটি অংশে গত কয়েক বছর ধরে বইমেলার আয়োজন হয়ে আসছে।

তবে চলতি বছর মার্চ মাস থেকে দেশে করোনা মহামারির সংক্রমণ শুরু হয়।

এ পরিস্থিতিতে কয়েক দফা লকডাউন ঘোষণা হয়।
শীতের শুরুতে বিশ্বজুড়ে আবার করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। সরকারের পক্ষ থেকেও এ বিষয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা মেনে চলতে বলা হয়েছে।

এ পরিস্থিতিতে ফেব্রুয়ারিতে বইমেলা আয়োজন সম্ভব নয় বলে জানায় বাংলা একাডেমি।

এর আগে বইমেলা উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব জালাল আহমেদ দেশ রূপান্তরকে বলেন, ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৮০’র কিছু বেশি প্রকাশক স্টল বরাদ্দের আবেদন করেছেন। যা অন্য বছরর তুলনায় অনেক কম।

করোনা পরিস্থিতিতে প্রকাশকরাও বাংলা একাডিমের প্রতি কিছু দাবি জানায়। এসব দাবি বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ফেসবুকে পরিকল্পনামন্ত্রীকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য, ছাত্রলীগ নেতার জিডি

জবি প্রতিনিধি: সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগ উঠেছে …

error: Content is protected !!