বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় জবি শিক্ষক সমিতির প্রতিবাদ

জবি প্রতিনিধিঃ কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (জবিশিস)। একই সাথে ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িত ও মদদদাতদের কঠোর শাস্তির দাবি করেছে সংগঠনটি।

সোমবার জবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ নূরে আলম আব্দুল্লাহ্ ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. শামীমা বেগম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গভীর উদ্বেগের সাথে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি লক্ষ্য করছে যে, মহান স্বাধীনতার স্থপতি ও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করে সাম্প্রতিক সময়ে প্রতিক্রিয়াশীল,মৌলবাদী ও স্বাধীনতাবিরোধী কুচক্রী মহল সারাদেশে অপতৎপরতাসহ নানা ধরনের উস্কানিমূলক বক্তব্য ও ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপে লিপ্ত রয়েছে যা কোন ভাবেই কাম্য নয়।

গত ৪ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করা বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করারই নামান্তর।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ১৯৭১ সালে যারা মহান মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করেছিল আজ তারা ও তাদের অনুসারীরাই এ ধরনের দেশবিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত রয়েছে।জবিশিস দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করে যে ত্রিশ লক্ষ শহিদের আত্মত্যাগ ও দুই লক্ষ মা বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীন বাংলাদেশে ষড়যন্ত্রকারী রাজাকার,আল বদর আল শামস এর দোষরদের ঠাঁই নাই।

মৌলবাদী অপশক্তির সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে সোনার বাংলায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের গ্রহণের জন্য সরকারের কাছে জোর দাবিও জানাচ্ছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

‘মাঠের দিকে কুনজর দিলে শিক্ষার্থীরা মাঠ রক্ষায় ঝাঁপিয়ে পড়বে’

জবি প্রতিনিধি: ‘ধুপখোলায়  আমাদের একমাত্র খেলার মাঠ।  বাণিজ্যিক স্থাপনা নির্মাণ করে খেলার মাঠ ধ্বংস করে …

error: Content is protected !!