কেরানীগঞ্জে ২৫ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

ঢাকার কেরানীগঞ্জে প্রায় ২৫ কোটি টাকা মূল্যের পাঁচ একর সরকারি খাস জমি উদ্ধার করেছে কেরানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন। ৩ ডিসেম্বর (বৃহস্পতিবার) দুপুরে কেরানীগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় উপজেলার রোহিতপুর ইউনিয়নের নতুন সোনাকান্দা (সৈয়দপুর) ধলেশ্বরী নদীর খেয়াঘাট এলাকায় এ জমি উদ্ধার করা হয় ৷

অভিযানে নেতৃত্ব দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার(ভুমি) কামরুল হাসান সোহেল উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানে ধলেশ্বরী নদীর পাড় ঘেঁষে গড়ে উঠা অর্ধশত বছরের পুরোনো ১০ টি মাছের আড়ৎ, একটি গবাদি পশুর হাট, ১টি চায়ের দোকান, ১ট হোটেলসহ প্রায় ২০টি স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

অভিযান কালে প্রশাসনের বিরুদ্ধে নোটিশ বা সময় না দেওয়ার অভিযোগ করেন কিছু ভুক্তভোগী। এই ঘাট ও হাটকে ঘিরে কয়েকশো লোকের রুজিরোজগার বলেও জানান তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ভুক্তভোগী জানান, এটা সরকারি জমি ঠিক আছে, আমরা প্রায় ৫০ বছর ধরে এখানে মাছের সিজনে মাছ বিক্রি করে সংসার চালাই। সরকারের কাজে আমরা জায়গা ছেড়ে দিতে বাধ্য। কিন্তু কোন নোটিশ ছাড়া এই উচ্ছেদে আমরা পথে বসে যাবো।


এব্যাপারে সহকারী কমিশনার( ভূমি) কামরুল হাসান সোহেল বলেন, সরকারি কোন জমি কারো দখলে থাকবেনা সে যতই ক্ষমতাধর হোক। আজ এই জমি উদ্ধার হলো, কাল অন্যটি। এভাবে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ জানান, উপজেলার সোনাকান্দা মৌজা প্রায় ৫ একর খাস জমি দীর্ঘদিন ধরে ভোগদখল করে আসছিল স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী লোক। আমরা লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতেই তাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে এ জমি উদ্ধার করেছি, যার আনুমানিক বাজার মূল্য ২৫ কোটি টাকার অধিক। এই জমি যেন ভবিষ্যতে পুনরায় জবরদখল না হয় সেদিকেও খেয়াল রাখবে প্রশাসন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন , উপজেলা নির্বাহী অফিসের সার্টিফিকেট সহকারী কর্মকর্তা শরীফ হোসাইন খানসহ স্থানীয় ভূমি অফিসের কর্মকর্তাগন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

উদ্যত শির লুটিয়ে দাও

  লেখক ডাক্তার রফিকুল ইসলাম হে বিশ্ব! থমকে দাড়ালে কেন? চমকে গেলে কেন? কোথায় তোমার …

error: Content is protected !!