তারাকান্দায় পুকুরে গ্যাস ট্যাবলেট দিয়েছে দূর্বৃত্তরা, ৫ লক্ষাধিক ক্ষতি

এস,এম,শামীম(ফুলপুর)ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ- শুক্রবার গভীর রাতে ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার বিসকা ইউনিয়নের ভাটিয়াপাড়া গ্রামের আলহাজ্ব আকবর আলীর ছেলে মোঃ মাইজুল ইসলামের পুকুরে রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তদের দেওয়া গ্যাস ট্যাবলেট প্রয়োগে প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন করেছে।

জানা গেছে ৫৫ শতাংশ জমিতে পুকুর খনন করে এবং পাশে আরো ২ টি পুকুর করে কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন রকমের মাছ চাষ করে আসছে পুকুর মালিক মাইজুল ইসলামে। গত রাতে তার এই ৫৫ শতাংশ পুকুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে দুর্বৃত্তরা গ্যাস ট্যাবলেট প্রয়োগ করে পুকুরে থাকা পাবদা ও বিভিন্ন প্রকার বাংলা মাছ মেরে ফেলেছে।

মাইজুল ইসলাম মৎস্য চাষের পাশাপাশি কৃষি কাজ ও ভাটিয়াপাড়া চান্দের বাজারে কাপড়ের ব্যবসা করেন। তিনি বলেন তার এই ৫৫ শতাংশ পুকুরে ৬০ পিস হিসেবে কেজি পাবদা মাছ ছিল প্রায় ৩৫ মণের মত এবং দেশীয় রুই, পুটি, কাতলা, মৃগেল, ঘাস কার্প সহ বড় বড় বাংলা মাছ ছিল প্রায় ২০ মণের মত। সব মিলিয়ে তার প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকার মাছ দুর্বৃত্তরা পুকুরে গ্যাস ট্যাবলেট প্রয়োগ করে নিধন করেছে।

তবে কে বা কারা এমন জঘন্য কাজ করেছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে তিনি অনেকটাই জোড় গলায় বলছেন আমার প্রতিপক্ষ শত্রুরা ছাড়া এমন কাজ আর কেউ করতে পারে না। আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই।

মাইজুল ইসলাম জানান, রাত সাড়ে ১২ টার সময় তিনি পুকুর পাড় থেকে উঠে ঘরে গিয়ে শুয়ে পড়েন। সকালে পরিবারের লোকজন পুকুরে গেলে মাছ মরে পানির উপরে ভেসে উঠছে দেখে চিৎকার দিলে মাইজুল সহ বাড়ির লোককজন এসে দেখে সব মাছ মরে পানির উপরে ভাসছে। এমতাবস্হায় এলাকার লোকজন ছুটে এসে জ্বাল দিয়ে পুকুর থেকে সব মাছ উপরে তুলে বাজারে পাঠানোর ব্যবস্হা করে।

পুকুর মালিক মাইজুল ইসলাম তাৎক্ষনিক বিসকা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুছ ছালাম মন্ডল সহ স্হানীয় লোকজনদেরকে বিষয়টি অবগত করেন। মাইজুল ইসলামকে সান্তনা দিতে প্রতিবেশী লোকজন আত্নীয় পরিজনসহ উৎসুক জনতা ছুটে আসে এবং সবাই এমন নেক্কার জনক ঘটনার নিন্দা জানান।

এ বিষয়ে এখনও কোন আইনি অভিযোগ দায়ের করা হয়নি বলে প্রথমিক ভাবে জানা গেছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

সাবেক মন্ত্রীর দখলে থাকা ৫০ কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি উদ্ধার

নাসির উদ্দিন,টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর অবৈধভাবে …

error: Content is protected !!