বন্ধুত্ব এবং কিছু কথা

সামাজিক জীব হিসাবে আমাদের পক্ষে একা বাস করা কখনোই সম্ভব নয়। একাক্বীত্ব কাটানো অসময়ে সাপোর্ট সব দিক থেকে সহচর্য লাভের জন্য একটা বন্ধু মানুষের খুব করে প্রয়োজন। আমাদের জীবনের প্রতিটা মূহুর্তে একজন ভালো বন্ধু প্রয়োজন।সত্যিকারের একজন বন্ধুই আমাদের বিপদের সাথী হয় ছায়ার মতো পাশে থাকে। সত্যিকারের বন্ধুই পারে আত্মার আত্মীয় হয়ে আমাদের দু:খ কষ্ট ভুলিয়ে দিতে। তবে মানুষ চেনা যেমন কঠিন, সত্যিকারের বন্ধু চেনা আরো বেশি কঠিন।বিশ্বাস রাখার মতো বন্ধু বর্তমানে খুজে পাওয়া নিত্বান্তই দুরহ হয়ে পরেছে। জীবনে চলতে গেলে বন্ধু চাই আমাদের। আবার সময়ের ব্যস্ততা, জীবন ধারার বদল, কিছু ভুল বুঝাবুঝি  ইত্যাদি বিভিন্ন কারনে হারিয়ে ফেলি প্রানের বন্ধুকে।

 

ভালো একজন বন্ধু পাবার প্রধান শর্ত হলো সম্পর্কের মাঝে কোন স্বার্থ থাকবে না।

মনে রাখতে হবে স্বার্থের  প্রয়োজনা করা বন্ধুত্ব গুলো কিছু সময়ের জন্য লাভোবান হলেও চুড়ান্ত দৃষ্টিতে তা যে কাউকে নি:শ্ব করে তোলে।

এ কারনে কোন স্বার্থকে চিন্তা না করে নিজের ভালোবাসা আর ভালোলাগা ভাগাভাগি করে নেয়াই হোক বন্ধুত্বের প্রথম শর্ত।

বন্ধুত্বের মাঝে যাতে কোন প্রকার ভুল বোঝাবুঝি অথবা মন মালিন্যের সৃষ্টি না হয় সেই দিকে লক্ষ রাখতে হবে।

এজন্য একে অপরের মানসিকতাটা বুঝা অত্যান্ত জরুরী একটা বিষয়।

তবে সব ক্ষেত্রে উভয়ের মানসীকতা এক না ও হতে পারে। এজন্য ছাড় দেয়ার মানষীকতা উভয়ের অবশ্যই থাকতে হবে।

বন্ধুত্বের যেমন নির্দিষ্ট সংঞ্জা হয় না, তেমনি বন্ধু নির্বাচনের ও নির্দিষ্ট কোন নিয়ম হয় না।

তবে বন্ধু নির্বাচনে বয়স, জেন্ডার অথবা সামাজিক অবস্থান যাতে মুখ্য না হয়ে উঠে সেই দিকে লক্ষ রাখতে হবে।

 

ভালো একজন বন্ধু নির্বাচনের ক্ষেত্রে নিচের বিষয় গুলো মাথায় রাখা যেতে পারে:

 

*) কারো প্রতি আকৃষ্ট হলেই তাকে বন্ধু করতে হবে এমন নয়। তার সম্পর্কে বিস্তারিত যেনে নিতে হবে।

যাচাই করে নিতে হবে সে বন্ধু হবার যোগ্য কিনা

*) হঠাত করে কারো সাথে পরিচয় হলেই তার সাথে বন্ধুত্ব করে ফেলা উচিত হবে না।

এতে অনেক সময় ভবিষ্যত পরিনতি খারাপ হতে পারে।

*) বন্ধু টাকা চাওয়া মাত্রই তাকে আপনি আপনার সামাথ্য অনুযায়ী কিছু টাকা ধার দিতে পারেন।

আর এই টাকা পাবার আশা ত্যাগ করে ধরে নিন এটা আপনার ইনভেষ্টমেন্ট। চুপচাপ খেয়াল রাখুন সে কথা অনুযায়ী আপনার টাকা ফিরত দেয় কিনা।

আপনার টাকা ফেরত দেয়ার জন্য তার সদিচ্ছা বা মনোভাব কেমন তা লক্ষ রাখুন। ব্যাস আপনি অনেক কিছুই বুঝতে পারবেন এতে।

*) কৃত্রিম সংকট তৈরি করুন। বিপদে পরে তার সহযোগিতা চান এক্ষেত্রে তার ভূমিকা পর্যালোচনা করুন। বুঝতে পারবেন সে আপনার কেমন বন্ধু।

বন্ধু ছাড়া লাইফ ইম্পসিবল। বন্ধুত্ব হলো ১টি আত্মার দুটি শরীর। একজন সত্যিকারের বন্ধু আপনাকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। প্রকৃত দুর্ভাগ্যবান তো তারাই যাদের ভালো একজন বন্ধু নাই।

 

রাজু আহমেদ।

নিউজ ঢাকা টুয়েন্টিফোর ডটকম।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ইতিহাসের সবচেয়ে বুদ্ধিমান ব্যক্তি উইলিয়াম জেমস

উইলিয়াম জেমস সিডিস ছিলেন এমন একজন ব্যক্তি যিনি ছিলেন সর্বকালের অন্যতম সেরা বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!