শেষ রক্ষা হলো না ভূমিদস্যু রুম্মনের

রাজধানীর শ্যামপুরে আলোচিত প্রতারনা ও ধর্ষণ চেষ্টা মামলার অন্যতম আসামি প্রতারক রুম্মন মৃধার শেষ রক্ষা হলো না। ২০১৯ সালের সেতুর দায়ের করা ধর্ষন চেষ্টা মামলা ১৭ নভেম্বর  রুম্মন হাজির দিতে গেলে আদালত তার জামিন নামন্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

অভিযোগ আছে রুম্মন  শ্যামপুর বালুর মাঠ এলাকায় নানা অপকর্ম করে এতোদিন দাপটের সাথে ঘুড়ে বেড়াচ্ছিল। এলাকার চিহ্নিত চাদাবাজ, মাদক ব্যবসায়ী, বখাটে সবার সাথে বেশ ভালো সখ্যতা রুম্মন মৃধার  ।

জাল দলিলের মাধ্যমে জায়গা দখল, একাধিক গৃহবধুকে বাসায় একা পেয়ে ধর্ষন চেষ্টা, প্রতারন সহ নানা অভিযোগে অভিযুক্ত রুম্মন মৃধা। ।  তার

কিছুদিন আগে জাল দলিলের মাধ্যমে জৈনক লিটন মিয়ার সম্পত্তি দখল চেষ্টা ও তার স্ত্রী সেতু আক্তারকে একা পেয়ে ধর্ষন চেষ্টা করে রুম্মন। এ ঘটনায় লিটন মিয়া আদালতে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে। ধর্ষন মামলায় সত্যতা মিললে রুম্মনকে জেলে পাঠায় আদালত।

জাল দলিলের মাধ্যমে অসহায় পরিবারের জমি দখলের মামলাটি পুলিশ ব্যুর আব ইনভেস্টিগেসন পিআইবিতে তদন্তধীন রয়েছে।

ভূমিদস্যু রুম্মানের গ্রেপ্তারে সস্তি প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

নওগাঁয় অনিয়মের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান বহিস্কার

নওগাঁ প্রতিনিধি: চাকুরি দেয়ার নামে অর্থ আদায় এবং ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণে অনিয়মের …

error: Content is protected !!