বদলগাছী উপজেলায় স্কুল ছাত্রের নিখোঁজের ৫ দিন পর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

 

নওগাঁ প্রতিনিধিঃজয়পুরহাটের আক্কেলপুরে রেললাইনের পাশ থেকে বস্তাবন্দী ৯ম শ্রেণির স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ

বদলগাছী থানা ও আক্কেলপুর থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ নভেম্বর বদলগাছী উপজেলাধীন খাদাইল গ্রামের আলামিন হোসেনের পুত্র খাদাইল উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী নাজমুল হোসেন (১৪)কে কেবা-কাহারা অপহরন করে নিয়ে যায়।অপহরনকারীরা মুঠোফোনে অপহৃত নাজমুলের পিতার নিকট ১৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে, সন্তানকে উদ্ধারের চেষ্টায় আলামিন হোসেন বিকাশে মুক্তিপণের কিছু টাকা দেওয়ার কথা বললেও অপহরণ কারীরা আলামিনের কথায় রাজি না হয়ে নাজমুলকে কোন একসময় মেরেফেলে বস্তাবন্দী করে আক্কেলপুর উপজেলাধীন বেলায়গেট এলাকার রেললাইনের পশ্চিম পাশে রেখে যায়। আজ ১১ নভেম্বর সকাল আনুমানিক ৭টার দিকে কৃষকরা ধান কাটতে গেলে বস্তাটি দেখে সন্দেহ হলে আক্কেলপুর থানায় খবর দেয়, আক্কেলপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে বস্তাবন্দী লাশ দেখতে পায়, পরে থানায় নেওয়া হয় এবং লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট জেলা হাসপাতালে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা যায়।নিহত নাজমুলের দাদা আব্দুস সালাম “দিগন্তরকে” জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে তার নাতী নিখোজ হওয়ায় থানায় অভিযোগ করার পরে আজ বুধবার নাজমুলের লাশ রেললাইনের পাশে পাওয়া যায়।
নিহত নাজমুলের পিতা মোঃ আলামিন হোসেন “দিগন্তরকে” জানান, গত শুক্রবার আমার ভাই মোঃ হেলাল এর মেয়ে আমার ভাতিজি মোছাঃ তানজিলা বেগম এর বিবাহে আমি ও আমার পরিবারের স্ত্রী এবং সন্তানসহ ০৬ জন সদস্য বিবাহ অনুষ্ঠানে যাই। পরে সন্ধ্যার দিকে পরিবারের পাঁচ জন সদস্য উপস্থিত থাকলেও আমার ছেলে নাজমুল উপস্থিত নেই।গত শনিবারে আমার ছেলে নিখোঁজ হওয়ার পর অপরহনকারীরা আমার ছেলেকে ছাড়ার জন্য আমার কাছ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা চায়। আমি কিছু টাকা দিতে রাজি হই পরে বিকাশ নাম্বার দিচ্ছি, দিবো বলে ফোন কেটে দেয় মর্মে অজ্ঞাত ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করি।তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে বদলগাছী থানা পুলিশ ১।মোঃ শিশু মন্ডল, পিতাঃ মোঃ আজম মন্ডল, ২। মোঃ আজম মন্ডল, পিতাঃ মোঃ মোকলেছর রহমান, ৩। মোছাঃ রিনা বেগম, পিতা/স্বামীঃ মোঃ আজম মন্ডল, সর্ব সাং খাদাইল, উপজেলা বদলগাছী, ৪। মোঃ সোহাগ হোসেন পিতাঃ মৃত উম্মত মন্ডল গ্রামঃ তিলকপুর, নওগাঁ সদর, নওগাঁ।
আক্কেলপুর থানা ও বদলগাছী থানা পুলিশ লাশটির বিষয় নিশ্চিত করেন এবং আইনী ব্যবস্থা অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন নিহতের চাচা মতিউর রহমান বলেন, আমার ভাতিজাকে শুক্রবার বিকেলে একটি মেয়ে বার বার ফোন করে ডেকে নেওয়ার পর থেকেই সে নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুজির পর বুধবার রেল লাইনের পশ্চিম পাশে নাজমুলের বস্তাবন্দি গলিত লাশ পাওয়া যায়।

বদলগাছী থানার ওসি (তদন্ত) রায়হান হোসেন বলেন, নিহত নাজমুলের বাবা গত শনিবার থানায় একটি অপহরন মামলা দায়ের করলে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইতু নামের এক মেয়েকে থানায় নেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্ত করে সঠিক তথ্য জানা যাবে তাকে কিভাবে হত্যা করা হয়েছে।

আক্কেলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল লতিফ খাঁন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় গলিত লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জয়পুরহাট মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর আইনী প্রক্রিয়ায় লাশটি বদলগাছী থানায় হস্তান্তর করা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

গফরগাঁও পৌরসভার নিবার্চনে আওয়ামিলীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

  গফরগাঁও প্রতিনিধিঃআসন্ন গফরগাঁও পৌরসভা নির্বাচনে সমর্থন পেলেন বর্তমান মেয়র ইকবাল হোসেন সুমন,তিনি ময়মনসিংহ জেলা …

error: Content is protected !!