শীতের অপেক্ষায় কেরানীগঞ্জের গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরা

শীতের অপেক্ষায় কেরানীগঞ্জের গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরা

অগ্রাহয়ন শুরু, হেমন্ত ও মাঝামাঝিতে, এই সময়ে শীতের আমেজ পরার কথা থাকলেও শীতের বিন্দু মাত্র দেখা নেই। আর এর ই প্রভাব পরেছে কেরানীগঞ্জের শীতের পোষাক বিক্রিতে। দোকানীরে অপেক্ষা করছে শীতের। অলস সময় পার করছেন ব্যবসায়ীরা।

কেরানীগঞ্জ গার্মেন্টস ব্যবসায়ী দোকান মালিক সমিতির আওতায় আগানগরে প্রায় চার হাজার গার্মেন্টস এবং দশ হাজারের বেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।  আর এ সকল দোকান থেকে পাইকারী পোশাক কিনতে দেশের নানা প্রান্ত থেকে ক্রেতারা আসেন। শুধু তাই নয়, এই খানকার পোষাক এর চাহিদা রয়েছে দেশের বাহিরেও।ছোট বড়ো মাঝারী, সব বয়সের সব ধরনের সবার জন্য পোষাক পাওয়া যায়। দামেও কম এই খানকার পোষাক। তাছাড়া পোষাকের গুনগত মান অনেক ভালো। তাই এইখান কার পোষাকের কদর রয়েছে দেশ জুড়ে।

কিন্তু শীতের পোষাক বিক্রির মৌসুম শুরু হলেও বেচা কিনা না হওয়াতে হতাশায় ভুগছেন ব্যাবসায়ীরা। বেচা কেনা না হবার পিছনে এখন পর্যন্ত শীতের প্রবাহ শুরু না হওয়াকে দায়ী করছেন অনেকে। কেউ কেউ বলছেন, দেশে অর্থনৈতিক মন্দাভাব চলছে , তাই বেচা বিক্রি খারাপ। কারন যাই হোক না কেন, বেচা কিনা না হওয়াতে দারুন ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে কেরানীগঞ্জের গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরা।

 

নবরাজ প্যান্ট হাউজের কর্নধার হাজী মো: জাহাঙ্গীর সাহেব জানান, শীত এখোনো পরেনি, তাই বেচা কেনা ও ভালো না। গেল বছর এই সময় মোটামুটি শীত পরে ছিলো কিন্তু এই বছর এখোনো শীত পরেনি। আর যেহুতু এটা সিজনাল ব্যবসা তাই শীতের উপর নির্ভর করে কেনা বেচা কেমন হবে। শীত উপলক্ষে প্রতিটা দোকানেই প্রায় কোটি টাকার উপরে কেনা বেচার টার্গেট থাকে। গেল কয়েক সীজনে শীত মোটামুটি কম পরায় আমাদের বেচা কেনা ও খুব কম হচ্ছে যার কারনে লাভ করা তো দূরের কথা , চালান তুলতেই কষ্ট হয়।

শীতের পোষাক বাজার নিয়ে কেরানীগঞ্জ গার্মেন্টস ব্যবসায়ী ও দোকান মালিক সমিতির কোষাধ্যক্ষ শেখ কাওসার নিউজ ঢাকা ২৪ কে জানায়, অামাদের দেশ ছয় ঋতুর দেশ।কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপটে দুই ঋতুর দেশ বললে চলে।দেশের অর্থনৈতিক দিক থেকে বললে সব ব্যবসার অবস্থা অাগের মতো নেই। তাই শীতের পোষাক জমজমাট কথাটি অাগের মতো বলতে পারছিনা।কিন্তু এশিয়ার বৃহত্তম পোষাক শিল্পের মার্কেট এই কালিগঞ্জ।অামাদের এখানের পোষাকের মান অনেক ভালো।বিশ্বের যে কোন দেশের পোষাকের সাথে চেলেন্জ করে এখানে পন্য তেরি করা হয়। সমগ্র বাংলাদেশ থেকে ক্রেতা আসে আমাদের এই খানে। আর তাদের নিরাপত্তা দিতে কেরানীগঞ্জ গা: ব্যবসায়ী দোকান মালিক সমিতি সার্বক্ষনিক ভাবে তৎপর রয়েছে।

 

আরো পড়ুন: সাজেদা হাসপাতালের গর্ভবতীর সাথে প্রতারনা করার গল্প।

নিউজ ডেস্ক।

নিউজ ঢাকা ২৪।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

এবার ছিন্নমূল মানুষের ঈদ আনন্দে পথশিশু ফাউন্ডেশন

নিজস্ব প্রতিবেদক দেশে করোনা মহামারির মাঝেই উদযাপন হলো আরো একটি ঈদ ৷ “ঈদ মানে আনন্দ, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!