নরসিংদীতে স্বামীকে আটক রেখে গাড়ির ভেতর স্ত্রীকে ধর্ষণ!

 

হৃদয় এস সরকার,নরসিংদী: নরসিংদীর পলাশ উপজেলায় স্বামীকে আটক রেখে জোড় করে স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক কাউন্সিলরের ভাইয়ের বিরুদ্ধে।অভিযুক্ত ঘোড়াশাল পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলম খন্দকারের ভাই পাপ্পুর খন্দকার।উক্ত ঘটনায় শনিবার (৭ নভেম্বর) রাতে নির্যাতিতা নারী পলাশ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পূর্বে গত ২৬ অক্টোবর এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও নির্যাতিতার পরিবার জানায়, অভিযুক্ত পাপ্পু খন্দকারের গাড়ি চালক ওই গৃহবধূর স্বামী। গত ২৬ অক্টোবর মাসিক ভেতন দেওয়ার কথা বলে নানা অজুহাত দেখিয়ে চালকের স্ত্রীকে আনতে বলে পাপ্পু।মালিকের কথা অনুযায়ী স্ত্রীকে আনলে চালককে আটক রেখে গাড়ির ভেতর গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। পরে আবারও গৃহবধূকে আনতে চালককে চাপ দেয় পাপ্পু। পরর্বতীতে গত শুক্রবার ৬ নভেম্বর রাতে পাপ্পু খন্দকার ও তার সহযোগী শাহাদতের বিরুদ্ধে পলাশ থানায় অভিযোগ দায়ের নির্যাতিতা নারী।

পলাশ থানার ওসি তদন্ত মো. হুমায়ূন কবীর বলেন, ওই গৃহবধূ নিজে থানায় মামলা করেছেন। অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গৃহবধূর ডাক্তারি পরিক্ষার জন্যে নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ধর্মের অপব্যাখ্যা, সম্মিলিত ইসলামী জোটের সভাপতির বিরুদ্ধে মামলা

ইসলাম ধর্মকে নিয়ে অপব্যাখ্যা করার অভিযোগে সম্মিলিত ইসলামী জোটের সভাপতি হাফেজ মাওলানা জিয়াউল হাসানের বিরুদ্ধে …

error: Content is protected !!