ব্যবসায়ীদের দাবীর প্রেক্ষিতে আলম মার্কেটের সামনে পল্টুন স্থাপন

নৌ দুর্ঘটনা কমানোর লক্ষ্যে গত ৫ সেপ্টেম্বর বুড়িগঙ্গা নদীর কেরানীগঞ্জ প্রান্তে আলম মার্কেটঘাটসহ দুই তীরের বেশ কয়েকটি ঘাট বন্ধ করে দেয় বিআইডব্লিউটিএ কতৃপক্ষ। এতে করে বিপাকে পরে যায় কেরানীগঞ্জের গার্মেন্টস পল্লীর ব্যবসায়ীরাসহ স্থানীয় এলাকাবাসী। বন্ধ হওয়া আলম মার্কেট ঘাটটি পুনরায় চালুসহ নৌ দুর্ঘটনা এড়াতে বেশ কয়েকটি দাবী ও প্রস্তাব নিয়ে বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষের সাথে কয়েক দফা আলোচনায় বসে কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদসহ ব্যবসায়ী নেতারা। উক্ত দাবী দাওয়ার প্রেক্ষিতে আজ বিকালে (২৬ অক্টোবর) আলম মার্কেট ঘাটে নৌকা চলাচলের জন্য একটি পল্টন স্থাপন করে বিআইডব্লিউটিএ কতৃপক্ষ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কেরনীগঞ্জ গার্মেন্টস ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মুসলীম ঢালী, যুগ্ন সাধারন সম্পদক তোফাজ্জল হোসেন, সদস্য মো: সেলিম, মো: আতোয়ার, আঞ্চলিক শাখা সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো: মানিক, থানা যুবলীগের সদস্য মো: শাহাদাৎ সহ প্রমুখ।

সরেজমিন কেরানীগঞ্জের আলম মার্কেট ঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, নিরাপদ নৌ চলাচলের লক্ষে ঘাটে স্থাপন করা হয়েছে একটি পল্টুন । পল্টুন থেকে যাত্রীরা ডিঙি নৌকায় চরে নদী পার হচ্ছে। দীর্ঘ দিন পরে ঘাট চালু হওয়ায় মাঝিদের মধ্যে খুশির জোয়াড় বইছে। পল্টুনটি দেখতে ভীড় করছে আসে পাশের লোকজন। পল্টুন স্থাপন করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও।

মো: জয়নাল নামে এক মাঝি বলেন, দীর্ঘ দিন পরে আবারো ঘাটটি চালু হয়েছে, এতো দিন খায়া না খায়া অনেক কষ্ট করেছি। শাহীন আহমেদ ভাই, মুসলীম ঢালী ভাইসহ সকলের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ । আমাদের রুটি রুজির আবার ব্যবস্থা হয়েছে।

মো: রুহানী নামে সদরঘাট এলাকার এক ব্যবসায়ী বলেন, এমনি তেই আমি হার্টের রোগী চলাচলে কষ্ট হয়। ঘাটটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এতো দিন আমার পারাপারে অনেক বেশি কষ্ট হতো । ঘাটটি চালু করতে যারা যারা শ্রম দিয়েছেন তাদের সকলের প্রতি আমরা এলাকাবাসী কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এই ঘাটতি শুধু ব্যবসায়ীদের জন্য না, চুনকুটিয়া ও আগানগর ইউনিয়নবাসীদের জন্য্ও গুরুত্বপূর্ন বটে।

এ বিষয়ে কেরানীগঞ্জ গার্মেন্টস পল্লীর সাধারন সম্পাদক মুসলীম ঢালী বলেন, ঘাটটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আমাদের ব্যবসায়ীরা দারুন বিপাকে পড়ে গিয়েছিলো। মাননীয় বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু ভাইয়ের নির্দেশে উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ ভাই ও ব্যবসায়ী নেতার বি আই ডাবিøউটিএ কতৃপক্ষের সাথে বৈঠক করে পুনরায় ঘাটতি চালু করতে পেরেছি। এ জন্য আমাদের ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে বিপু ভাই , শাহীন ভাই, বিআইডাবিøউটিএ কতৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

গত বছরও ঘাট বন্ধ হয়ে গিয়েছিলো, বিপু ভাই শাহীন ভাই নৌ মন্ত্রীর সাথে সরাসরি কথা বলে সে সময় আমাদের সমস্যার সমাধান করে দেন। এবার ও করে দিলেন। ঘাটতি পুনরায় চালু করার জন্য সাংবাদিকরাও তাদের লিখনীর মাধ্যমে ব্যবসায়ীদের দুর্দশার কথা তুলে ধরেছেন। আমি কেরানীগঞ্জের সকল সাংবাদিক ভাইয়ের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানাই।#

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

বুড়িগঙ্গা দূষণ রোধে কেরানীগঞ্জে ডাইং,ওয়াশিং ও প্রিন্টিং কারখানায় মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা

বুড়িগঙ্গা নদীর দূষণ রোধে মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগে দায়েরকৃত রীট পিটিশন বাস্তবানে কেরানীগঞ্জে ডাইং,ওয়াশিং ও প্রিন্টিং …

error: Content is protected !!