ছাত্রলীগ কর্মীরা একে অপরকে মেরে আহত করলো জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে

ছাত্রলীগ কর্মীরা একে অপরকে মেরে আহত করলো জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে

ছাত্রলীগ কর্মীদের নিজেদের মধ্যে মারামারি জের ধরে আহত হলো একজন। ব্যাংকে লাইনে দাড়ানোর নিয়ে বাগবিতন্ডতার জের ধরে এক শিক্ষার্থী অপর শিক্ষার্থীকে কুপিয়েছে। তারা দুজনেই নিজেদের ছা্ত্রলীগ  এর কর্মী বলে দাবী করেছে।

মনোবিজ্ঞান বিভাগের  মিথুন বাড়ৈকে কুপিয়েছে বোটানি বিভাগের শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম শান্ত। পরে মিঠুন বাড়ৈকে রক্তাত্ব অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়। মঙ্গল বার বেলা দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রনী ব্যাংকে এই ঘটনাটি ঘটে।

তারা দুইজন ই নিজেদের জবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলামের কর্মী বলে দাবী করেন। তবে ছাত্রলীগের সভাপতি বলেন তারা কেউ ছাত্রলীগের কর্মী নন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মিঠুন বাড়ৈ লাইনে দাড়িয়ে টাকা জমা দেয়ার সময় তৌহিদুল ইসলাম শান্তর সাথে বাগবিতন্ডতায় জড়িয়ে পড়েন। ঝগড়ার একপর্যায় মিঠুন শান্তকে চড় মারে। শান্তও পাল্টা আঘাত হিসাবে তার সাথে থাকা খুর দিয়ে মিঠুনকে কোপ দেয়। এতে মিঠুন অনেক জখম হয় । পরে শান্ত দ্রুতই পিছনের গেট দিয়ে দ্রুতই ঘটনা স্থল ত্যাগ করেন।

সহকারী প্রক্টর ড. মোস্তফা কামালকে বিষয়টি জানালে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আ্যাম্বুলেন্সে মিঠুনকে ঢামেক হাসপাতালে দ্রুতই পাঠান। সেখানে মিঠুনের জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা করা হয় । প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, ঘটনা শুনেছি , মিঠুনকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়েছি।

এদিকে তৌহিদুল ইসলাম শান্ত বলেছেন, তিনি জবি ছাত্রলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলামের গ্রপে সম্প্রতি ময়মনসিংহ গ্রুপে যোগ দিয়েছেন। ঘটনার সত্যাতা স্বীকার করে তিনি বলেন, আমার এক আপু ব্যাংকে লাইনে দাড়িয়ে টাকা দিচ্ছিলেন। মিঠুন তার সাথে কথা কাটাকাটি করে আমি মিঠুনকে থামতে বলি । ও না থেমে আমাকে ঘুষি মারে। আমার হাতে রড ছিলো। রড দিয়ে তাকে আঘাত করি। পরে বড়ো ভাই এর নির্দেশ মতো চলে আসি। 

যদিও প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, তার হাতে খুর ছিলো যা দিয়ে তিনি কুপিয়েছেন।

 

বড় ভাই কারা জানতে চাইলে শান্ত প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান। রাজনীতির বিষয়ে জানতে চাইলে শান্ত বলেন, আমি জবি  ছাত্রলীগ সভাপতি তরিকুল ভাইয়ের সাথে রাজনীতি করি।

এ বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলাম টুকুর সাথে কথা বললে তিনি যানান, ব্যাংকের সাধারন শিক্ষার্থীরা মারামারি করছে এমন খবর শুনে আমাদের কয়েকজন নেতাকে পাঠাই । তারা আহত মিঠুনকে দ্রুত উদ্ধার করে ঢামেক এ নিয়ে যায়। তবে এ ঘটনার সাথে জড়িতরা ছাত্রলীগের কেউ নয়।

আরো পড়ুন : ইতিহাস হয়ে থাকবেন কাকা

সুত্র: : jago news

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

মাতৃভাষা দিবস নিয়ে জবি শিক্ষার্থীদের ভাবনা

বাংলাদেশ ও বাঙালিত্বের ইতিহাসে ফেব্রুয়ারি মাস খুব তাৎপর্যপূর্ণ। রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি …

22 comments

  1. Can you tell us more about this? I’d like to find out more details.|

  2. Hey! This is my first visit to your blog! We are a group of volunteers and starting a new project in a community in the same niche. Your blog provided us useful information to work on. You have done a outstanding job!|

  3. What’s up, yes this piece of writing is in fact pleasant and I have learned lot of things from it regarding blogging. thanks.|

  4. Thank you for the auspicious writeup. It if truth be told was a entertainment account it. Glance complicated to more brought agreeable from you! By the way, how can we keep in touch?|

  5. Thank you, I’ve just been looking for information about this subject for
    a while and yours is the best I have discovered till now.
    However, what in regards to the conclusion? Are you positive in regards to the supply? http://antiibioticsland.com/Stromectol.htm

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!