মানবতার সেবায় ‘বালিয়া ব্লাড ব্যাংক’

 

এস,এম,শামীম(ফুলপুর) ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ “আমার রক্তে যদি সহযোগিতা করে- মুমূর্ষ রোগীর প্রাণ, তাহলে আমি কেন করব না স্বেচ্ছায় রক্তদান?” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মানবতার ফেরী সংগঠনের স্বপ্নদ্রষ্টা সাহিত্যিক ও কবি আশরাফ উদ্দিনের উদ্যোগে, স্বেচ্ছায় রক্ত দাতারা মানুষের পাশে থাকতে গড়ে তুলেছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বালিয়া ব্লাড ব্যাংক।

রক্তদানের মহৎ উপকারিতা ও মানবতার সর্বোত্তম এই সেবা সম্পর্কে উদ্বুদ্ধ করা ও যুব সমাজকে রক্তদানে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে ইউনিয়নের প্রত্যেকটা হাটে- বাজারে মতবিনিময় সভা করাছে সংগঠনটি। মানুষের জীবন বাঁচাতে রক্তদানের আহ্বানে সাড়া দিতে তাঁরা ছুটে বেড়াছেন সর্বত্রই।

তারই ধারাবাহিকতায় ময়মনসিংহ ফুলপুর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের শালিয়া মোড়ে আশরাফ উদ্দিনের সভাপতিত্বে আহবায়ক অমিত দেওয়ানের পরিচালনায় এক মতবিনিময় সভা করে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি।

উক্ত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বালিয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম মোতালেব দেওয়ান বিসিএস ক্যাডার (শিক্ষায়)
মোঃ সাইফুল ইসলাম, মোঃ রমজান আলী সরকার, মোঃ সফিকুল ইসলাম সেলিম, ও মোঃ সাইয়েদুর রহমান প্রমূখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, আমাদের দেশে সব সময়ই রক্তের স্বল্পতা বিরাজ করে, রক্ত দাতাদের অপ্রতুলতা এর অন্যতম ‍প্রধান কারণ। জনগণকে রক্তদানে উৎসাহিত করা, স্বেচ্ছায় রক্তদানে সচেতনতা বৃদ্ধি করা, নতুন রক্তদাতা তৈরি করা ও নিরাপদ রক্ত ব্যবহারে “বালিয়া ব্লাড ব্যাংকে- (বিবিবি) এর সহায়তা নেওয়া এবং জনগণকে প্রাণঘাতী রক্তবাহিত রোগ এইডস, হেপাটাইটিস-বি, হেপাটাইটিস-সি ও অন্যান্য রোগ থেকে নিরাপদ রাখার জন্য স্বেচ্ছায় রক্তদান ও রক্তের সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করা এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য।

এছাড়া বক্তব্য আরো জানান, রক্তদান সম্পর্কে অনেকের মনেই এক ধরণের অহেতুক ভয় ভীতি বা সঙ্কোচ কাজ করে,তবে রক্তদান কোনো কঠিন বা দুঃসাহসের কাজ নয়। ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সী যেকোনো সুস্থ ব্যক্তি (পুরুষের ক্ষেত্রে ওজন কমপক্ষে ৪৮ কেজি, মেয়েদের ক্ষেত্রে ৪৫ কেজি) প্রতি চার মাস পরপর এক ব্যাগ করে রক্ত দিতে পারেন। এতে রক্তদাতার শারীরিক ক্ষতি বা অসুস্থতার কোনো সম্ভাবনা নেই। রক্তদান একটি সহজ প্রক্রিয়া। এতে কোনো ক্ষতি নেই,রক্ত দান করলে রক্ত কমে না। স্বাভাবিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই আমাদের শরীরে রক্ত উৎপন্ন হয়। আপনার একটু সহানুভূতিতে যদি কারো জীবন রক্ষা করে, তবে আসুন না রক্ত দিই জীবন বাঁচাই,স্বেচ্ছায় রক্তদানে এগিয়ে আসি। আপনার অন্তত এক ব্যাগ রক্ত দানে বেঁচে যেতে পারে একটি মুমূর্ষ রোগীর প্রাণ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

টাঙ্গাইলে সন্তানকে খুঁজে পেতে থানা জিডি করলো বাবা

  টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ভাটচান্দা গ্রামের মাদ্রাসা শিক্ষার্থী ইউসুফ আলীকে (১০) খুঁজে পেতে …

error: Content is protected !!