রামগড়ে যৌথ অভিযানে অস্ত্রসহ ইউপিডিএফের ৩ কর্মী আটক

 

মুহাম্মদ রায়হান আদনান খাগড়াছড়ি, রামগড় প্রতিনিধিঃ খাগড়াছড়ির জেলার রামগড় উপজেলার দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় সেনাবাহিনী ও পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) তিন কর্মীকে অস্ত্র ও বিভিন্ন মালামালসহ আটক করেছে। বুধবার(৭ অক্টোবর) ভোররাতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মানিকছড়ির বাটনাতলী ক্যাম্পের কমান্ডার ক্যাপ্টেন মো. ওয়ালী উল্লাহর নেতৃত্বে সেনাবাহিনী ও পুলিশ রামগড়ের পাতাছড়া ইউনিয়নের গরুকাটা নামক দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় যৌথ অভিযান চালায়।

এসময় ঐ এলাকায় জনৈক অনিল চাকমার বাসা থেকে রামগড়ের জরিচব্দ্র পাড়ার সরি কুমার ত্রিপুরার ছেলে রকি ত্রিপুরা (২০), দীঘিনালার রাজেন্দ্র কার্বারীপাড়ার দুলা ত্রিপুরার ছেলে জুয়েল ত্রিপুরা (২৩) ও গুইমারার দেওয়ানপাড়ার উলা অং মারমার ছেলে চাথো অং মারমাকে(৩০) আটক করে। এ সময় ঐ ঘর তল্লাশি করে ১টি এলজি, দুই রাউন্ড কার্তুজ, ৮টি মোবাইল ফোন সেট, চাঁদা আদায়ের রশিদ বই, নগদ ৩২ হাজার ৫৬০ টাকা, সংগঠনের নীতিমালার বই ও হিসাব রেজিস্টার বইসহ সংগঠনটির বিভিন্ন নথিপত্র জব্দ করা হয়।

সূত্র জানায়, আটককৃত সবাই ইউপিডিএফের প্রসীত খীসা গ্রুপের চাঁদা কালেক্টর। এছাড়া যে বাসা থেকে এদের অস্ত্রসহ আটক করা হয় ঐ বাসার মালিক অনিল চাকমাও সংগঠনটির সক্রিয় সদস্য। তবে তাকে আটক করা যায়নি।

রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শামসুজ্জামান বলেন, ‘বুধবার ভোররাতে গরুকাটা এলাকায় যৌথ অভিযানে অস্ত্রসহ আটক ইউপিডিএফের তিন সন্ত্রাসীকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবার বিকেলে রামগড় থানায় হস্তান্তর করেছে সেনাবাহিনী।’

তিনি বলেন, ‘এদের বিরুদ্ধে থানায় অস্ত্র ও চাঁদাবাজি আইনে মামলা রুজুর প্রক্রিয়া চলছে।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ভিডিও ভাইরালের ভয় দেখিয়ে নয় মাস ধর্ষণ, চেয়ারম্যান গ্রেফতার

গাইবান্ধায় ন্যাশনাল সার্ভিসের এক কর্মীকে (৩৫) ধর্ষণ ও তার ভিডিও ধারন করে ভাইরালের ভয় দেখিয়ে …

error: Content is protected !!