রামগড়ে পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও ১৪বছর মসজিদ কমিটির সভাপতি পদ জোরপূর্বক দখলের অভিযোগ

 

মুহাম্মদ রায়হান আদনান, খাগড়াছড়ি, রামগড় প্রতিনিধিঃ খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলার সোনাইপুল আল ফালাহ জামে মসজিদের সভাপতি রামগড় পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ শাহজাহান রিপনের বিরুদ্ধে মসজিদ কমিটি কেন্দ্রীক বিভিন্ন অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতা ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

গত মঙ্গলবার মসজিদের সাধারন সভায় এসব অভিযোগ করেন মসজিদের ভূমিদাতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মরহুম কাজী রুহুল আমীন এর ছেলে কাজী মোহাম্মদ শাহরিয়ার ইসলাম শাহেদ এবং কাজী সাইফুল ইসলাম শিমুল।

আছরের নামাজের পর এলাকার সকল মুসল্লি,গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন রামগড় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার ফারুক, মসজিদ কমিটির সভাপতি ও পৌর মেয়র কাজী শাহাজান রিপন, মসজিদ কমিটির সাধারন সম্পাদক রবি মজুমদার, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বাহার উল্লাহ মজুমদার, আওয়ামীলীগ নেতা এরশাদ উল্লাহ, জসীম চৌধুরী, সোনাইপুল বাজার কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার ইসলাম সাহেদ প্রমুখ।

সাধারন সভায় দীর্ঘদিন ধরে কমিটি আটকিয়ে রেখে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ অস্বীকার করে কমিটির সভাপতি পৌর মেয়র শাহাজাহান রিপন বলেন, তার সময়েই মসজিদের জায়গা বর্ধনের জন্য দশ শতক জায়গা কিনা হয়েছে এবং মসজিদে আধুনিক শীতাতপ যন্ত্র স্থাপন করেন। স্থল বন্দরে ক্ষতিপূরণ বাবদ টাকা মসজিদের উন্নয়নে ব্যায় হবে বলে জানান তিনি।

‌মসজিদ কমিটির সভাপতির বক্তব্যের বিরোধীতা করে কাজী শাহরিয়ার ইসলাম শাহেদ বলেন, দীর্ঘ ১৪ বছর ধরে কমিটি আটকিয়ে রেখে উন্নয়ন মূলক কাজের নামে নানা রকম দূর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে কমিটির সভাপতি। মসজিদের জায়গা ক্রয় এবং শীতাতপনিয়ন্ত্রক যন্ত্র লাগানোর নাম করে মোটা অংকের অর্থ আত্মসাৎ করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। দীর্ঘদিন কমিটির নির্বাচন না হওয়ায় মসজিদের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড স্থবির হয়ে গেছে বলে জানান। তিনি আশংকা প্রকাশ করে বলেন স্থল বন্দরে মসজিদের জায়গার ক্ষতিপূরণ বাবদ দুইকোটি বাষট্টি লক্ষ টাকা বর্তমান সভাপতির অধীনে নিয়ে আসলে সেটি তিনি ব্যক্তিগতভাবে তার পৌর নির্বাচনের খরচের জন্য ব্যবহার করবেন।

‌জেলা প্রশাসক বরাবর এক লিখিত অভিযোগে কাজী শাহরিয়ার ইসলাম শাহেদ ও কাজী সাইফুল ইসলাম শিমুল বলেন মসজিদের জন্য তাদের পিতার দানকৃত জায়গার পঁয়ত্রিশ শতক ভূমি রামগড় উপজেলা এক্সেল লোড স্টেশন কন্ট্রোলার নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় পড়েছে। জায়গা বাবদ তাদের পরিবারের সদস্যরা যে ক্ষতি পূরণ পাবেন তা বর্তমান সভাপতির হাতে তুলে না দিয়ে সমাজের গণ্যমান্যদের উপস্থিতিতে মসজিদ ফান্ডে দান করবেন। লিখিত অভিযোগে শাহেদ তার বড় ভাই পৌর মেয়র ও মসজিদ কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ শাহাজাহান রিপন ও তার অপর ভাই জিয়াউল হক শিপনের বিরুদ্ধে তার পিতার জায়গা বাবদ ক্ষতি পূরণের ০.০৬(ছয় শতক) ভূমির ৪২৬৭০০০(বেয়াল্লিশ লক্ষ সাতষট্টি হাজার)টাকা আত্মসাত করেছেন বলে অভিযোগ করেন। কাজী সাইফুল ইসলাম শিমুল আরো অভিযোগ করে বলেন, মসজিদ কমিটির সভাপতি হতে হবে একজন সৎ ও চরিত্রবান ব্যক্তি, কিন্তু তিনি একজন অসৎ ব্যক্তি, কাজী রিপনের বিরুদ্ধে এর আগেরও বাবু যতিন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি থাকাকালিন দলিয় লোকজনকে টেন্ডারের কাজ পাইয়ে দিবে বলে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্নসাতের অভিযোগ ও প্রমান রয়েছে।

সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বাহার উল্লাহ মজুমদার মসজিদ কমিটি নিয়ে অভিযোগ করে বলেন দীর্ঘদন ধরে এই কমিটির কোন মিটিং হয়না।মসজিদ কমিটির বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে অভিযোগ করায় তার উপর শারীরিক এবং মানসিক নির্যাতন করা হয়েছে। প্রাণের ভয়ে তিনি রামগড় থানায় সাধারন ডায়েরী করেছেন।

রামগড় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার ফারুক তার বক্তব্যে বলেন,মসজিদ আল্লাহর ঘর। কোন বিশৃঙ্খলা না করে সকলকে ধৈর্য ধরে সুন্দর সমাধানের আহবান জানান। দীর্ঘদিন কমিটি না হওয়ায় এমন অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিমত প্রকাশ করেন। তিনি উপস্থিত সমাজের সকলকে অনুরোধ করে বলেন, সবার মতামতের ভিত্তিতে গ্রহণযোগ্য মসজিদ পরিচালনা কমিটি যেন গঠন করা হয়। বর্তমান মসজিদ কমিটির অনেক সদস্য বেঁচে নেয়। এমতবস্থায় নতুন করে মসজিদ কমিটি গঠন ছাড়া কোন বিকল্প নেই বলেও জানান
তিনি।

এদিকে মসজিদ কমিটির সাধারন সভাকে কেন্দ্র করে মসজিদ সংলগ্ন এলাকা গুলোতে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। নিরাপত্তা জোরদারে মসজিদের বাইরে পুলিশ এবং বিজিবির সমন্বয়ে যৌথবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। কঠোর নজরদারির মধ্য দিয়ে মুসল্লিদের মসজিদে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে।

রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামসুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মসজিদ কমিটির বিরোধকে কেন্দ্র করে যেন কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা সৃষ্টি না হয় এজন্য বাড়তি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

শৈলকুপায় ‘জমি আছে ঘর নাই’ প্রকল্পে ঘর নির্মাণে অনিয়ম, তদন্তে দুদক

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি – ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ‘জমি আছে ঘর নাই’ আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পে ঘর নির্মাণে অনিয়ম প্রসঙ্গে …

error: Content is protected !!