অন্তঃসত্ত্বা মুসলিম নারীর ওপর হামলায় অস্ট্রেলীয় নাগরিকের কারাদণ্ড

 

অস্ট্রেলিয়ায় এক মুসলিম নারীর ওপর বিনা উস্কানিতে হামলার দায়ে একব্যক্তিকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন স্থানীয় আদালত। এর মধ্যে অন্তত দুই বছর তিনি প্যারোলে বের হতে পারবেন না।

জানা গেছে, গত নভেম্বরে ৩৮ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন হামলা হয় রানা এলাসমার নামে এক মুসলিম নারীর ওপর। ঘটনার দিন হিজাব পরিহিত অবস্থায় সিডনির একটি ক্যাফেতে বসেছিলেন এলাসমার। এসময় স্টাইপ লোজিনা নামে এক ব্যক্তি তার কাছে যান।

কিছুক্ষণ কথা বলার পরেই আচমকা এলাসমারের মুখে ঘুষি মারেন অস্ট্রেলীয় ওই ব্যক্তি। আঘাত লেগে চেয়ার থেকে পড়ে গেলে মুসলিম ওই নারীর মাথায় লাথি মারেন তিনি। এসময় এলাসমারের বন্ধু ও পাশে থাকা অন্য ক্রেতারা এগিয়ে এসে হামলাকারীকে আটকান। হামলার আগে লোজিনা বর্ণবাদী মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এলাসমার জানিয়েছেন, হামলার সময় তিনি তার অনাগত সন্তানকে রক্ষার চেষ্টা করছিলেন। এতে তিনি খানিকটা আহত হলেও তার পুত্রের কোনও ক্ষতি হয়নি।

গত জুনে এলাসমারের বোন জানিয়েছিলেন, হামলার পর কয়েক মাস কেটে গেলেও এখনও সেই ঘটনার শারীরিক ও মানসিক প্রভাব অনুভব করছেন তার বোন।

গত মাসে আদালতের বাইরে রানা এলাসমার সাংবাদিকদের বলেছিলেন, ‘যদি মনে করেন, আপনার থেকে দেখতে কিছুটা আলাদা হওয়ায় শারীরিক বা মৌখিকভাবে কাউকে হেনস্তা করার অধিকার রয়েছে, তবে অস্ট্রেলিয়া আপনার জন্য সঠিক দেশ নয়।’

অবশ্য আদালতে লোজিনা দাবি করেছেন, ইসলামবিদ্বেষের কারণে তিনি হামলা করেননি বা এটি কোনও বর্ণবাদী ঘটনা ছিল না।

এই অস্ট্রেলীয় বলেছেন, ‘আমি তাদের (মুসলিম) ঘৃণা করি না। কিন্তু তাদের সঙ্গে আমার বনিবনা হচ্ছিল না। তাদের সঙ্গে আমার কোনও লেনাদেনা নেই।’

সূত্র: সিএনএন
কেএএ/

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ভিক্ষায় পাওয়া লটারিতে জিতল ৫০ লাখ টাকা!

ভিক্ষাবৃত্তি করে দিন চলত গৃহহীন চার ব্যক্তির। রাস্তাই তাদের ঘর, অনেকটা ভবঘুরে জীবন তাদের। এর …

error: Content is protected !!