বেঁচে থাকলে সুশান্তকেও জেলে যেতে হত

 

হিন্দি সিনেমার আঙিনায় তোলপাড় চলছে বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে। সুশান্তের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে ভারতের প্রায় সব ইন্ডাস্ট্রির মানুষেরাই জড়িয়েছে নানা তর্কে বিতর্কে।

তবে বর্তমানে সুশান্তের মৃত্যু রহস্য উদঘাটনের চেয়ে সবার নজর বলিউডে মাদক সংশ্লিষ্টতা নিয়ে। এরইমধ্যে এই অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী। ভারতের আদালত দ্বিতীয় দফাতেও খারিজ করে দিয়েছে রিয়ার জমিন।
এদিকে রিয়া বম্বে হাইকোর্টে জামিনের আবেদনে জানিয়েছেন, সুশান্ত অনেক আগে থেকেই মাদকে আসক্ত। সে তার নিজের স্বার্থে আমাকে এবং আমার পরিবারের সদস্যদের ব্যবহার করেছে। সুশান্তের জন্য গাঁজা বানিয়ে রাখতে সে বাড়ির কর্মচারীদের নির্দেশ দিয়ে রাখত। এমনকি সুশান্তের পরিবারও জানত ওর মানসিক সমস্যার কথা। একেবারে কোন কারণ ছাড়াই আমাকে এবং আমার পরিবারকে ফাঁসানো হয়েছে।

রিয়া তার জামিন আর্জিতে আরও বলেন, সুশান্ত শুধু নিজে ড্রাগ নিত না। সে বাড়ির বাকি সদস্যদেরও ড্রাগ গ্রহণ করা জন্য নির্দেশ দিত। সুশান্ত আজ বেঁচে থাকলে ড্রাগ নেওয়ার অভিযোগে অভিযোগে ওকেও জেলে যেতে হত। হয়তো ওর সাজা হত জামিনযোগ্য এবং খুব বেশি হলে এক বছরের কারাদন্ড। সুশান্ত সুযোগে আমার ভাইকেও ব্যবহার করেছে। সুশান্ত প্রায় আমার ভাই নিরজকে নির্দেশ দিয়ে রাখত ওর জন্য গাঁজা বানিয়ে রাখতে। মৃত্যুর তিনদিন আগেও নিরজ সুশান্তের নির্দেশে তার জন্য এক বক্স গাঁজা ভরে রেখেছিল। ওর মৃত্যুর পর বেডরুম থেকে সেই খালি বক্স পাওয়া যায়। এর থেকেই বুঝা যায়, নিজের স্বার্থে সুশান্ত সবাইকে ব্যবহার করত।
প্রসঙ্গত, গত ৮ সেপ্টেম্বর এনসিবি গ্রেফতার করে রিয়া চক্রবর্তীকে। সুশান্তের মৃত্যুতে ড্রাগ যোগের হদিশ পেয়েই আলাদা করে তদন্ত শুরু করে এনসিবি। এরপরই রিয়া-সহ মাদক যোগে গ্রেফতার করা হয় ১৮ জনকে। তারপর থেকে বাইকুলা সংশোধনাগারেই রয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী। আপাতত ৬ অক্টোবর পর্যন্ত তার জেল-হাজত চলবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

আজ কন্ঠশিল্পী বেলাল খাঁনের জন্মদিন 

  মোঃএনামুল হক বাবু, বিনোদন প্রতিবেদনঃবেলাল খান একজন বাংলাদেশী সুরকার, গায়ক ও সংগীতায়োজক। তিনি ২০১৪ …

error: Content is protected !!