এবার যেসব ‘প্রতিশ্রুতি’ নিয়ে আসছে সালাউদ্দিন প্যানেল

জাতীয় দলকে শক্তিশালী করা, জেলা লিগ নিয়মিত রাখা, দেশের প্রতিটি জেলায় ফুটবল ফেস্টিভ্যালসহ নানা প্রতিশ্রুতি নিয়ে আসছে কাজী সালাউদ্দিন-সালাম পরিষদের নির্বাচনী ইশতেহার। প্যানেলের সহ-সভাপতি প্রার্থী আতাউর রহমান মানিক বলছেন, বাস্তবসম্মত ইশতেহার দেবে তাদের প্যানেল। আরেক প্রার্থী ইমরুল হাসানের মতে, শুধু কাউন্সিলরদের আকৃষ্ট নয়, ইশতেহার হচ্ছে ফুটবলের উন্নয়নে।

নির্বাচন আসলেই ইশতেহার আর প্রতিশ্রুতিতে আশা দেখান প্রার্থীরা৷ কিন্তু দিনশেষে দেশের ফুটবলের চিত্রটা থাকে অভিন্ন। বাফুফে নির্বাচন সামনে রেখে টানা চতুর্থবারের মতো ইশতেহার ঘোষণা করতে যাচ্ছে কাজী সালাউদ্দিন প্যানেল।
চোখ রাখা যাক গেল নির্বাচনী ইশতেহারে। মোটা দাগে দেখা যায়, জাতীয় দলকে শক্তিশালী করতে বয়সভিত্তিক দলগুলোতে জোর দেয়া, ২০১৬ সালের জুন থেকে চালুর কথা ছিল বাফুফের একাডেমি। আন্তর্জাতিক মানের ফিটনেস সেন্টার এখনো স্বপ্নই হয়ে আছে। সব বিভাগীয় শহরে ফুটবল টার্ফ স্থাপনের বাস্তবায়ন দেখা যায়নি। হয়নি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ, সোহরাওয়ার্দী কাপ কিংবা শের-এ বাংলা কাপ।
২০২০ নির্বাচন সামনে রেখে নতুন ইশতেহারে স্থান পাচ্ছে জাতীয় দলকে শক্তিশালী করার বিভিন্ন পরিকল্পনা, জেলা লিগগুলো নিয়মিতকরণ, বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্ট এবং বঙ্গবন্ধু ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশিপ। তবে এ নির্বাচনে বড় প্রত্যাশা হতে পারে, দেশের প্রতিটি জেলায় ফুটবল ফেস্টিভ্যাল আয়োজন। যাকে বাস্তবসম্মত বলছেন প্যানেলের সহ-সভাপতি প্রার্থী আতাউর রহমান মানিক।
মানিক বলেন, ইশতেহার হচ্ছে একটা স্বপ্ন। আমরা এই স্বপ্নটা নিয়ে এগোতে চাই। আমরা এমন কোনো স্বপ্ন নিয়ে এগোব না যেটা হাস্যকর শোনাবে। যেটার আসলে বাস্তবায়ন হবে না। বাস্তবমুখী হবে এমন একটা ইশতেহার নিয়ে আমরা এগোচ্ছি।
সালাউদ্দিন-সালাম পরিষদের আরেক প্রার্থী ইমরুল হাসানের চিন্তা ভিন্ন। শুধু ভোটারদের মন যোগাতে নয় বরং দেশের ফুটবলের উন্নয়নকেই জোর দেয়া হচ্ছে ইশতেহারে। এমনটাই জানালেন তিনি।
ইমরুল হাসান বলেন, আমি শুধু ভোটারদেরকে আকৃষ্ট করার জন্যই যে ইশতেহার দিচ্ছি এমন না। নির্বাচনের খাতিরে অনেক কিছু ইশতেহারে দেখানো যায় তবে আমি তেমন কিছু করতে চাই না। আমি কাজ করতে চাই ফুটবলের উন্নয়নে। আমরা চাই তৃণমূল ফুটবলে কাজ করতে। ফুটবলার তুলে আনতে। জেলাপর্যায়ে লিগ চালু করতে চাই আমরা।
গেল তিনবারের মতো এবারো উন্নয়নমুখী নানা পরিকল্পনা থাকছে সালাউদ্দিন-সালাম পরিষদের ইশতেহারে। সংশ্লিষ্টদের প্রত্যাশা, পরিকল্পনা শুধু কাগজে-কলমে নয়, বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশের ফুটবল এগিয়ে যাক সঠিক পথে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

দেশে ধর্ষণ বাড়ায় মার্শাল আর্টে ঝুঁকছে মেয়েরা

  দেশের মার্শাল আর্ট ফেডারেশনগুলোতে বাড়ছে মেয়েদের সংখ্যা। নারী নির্যাতন ও ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায়, …

error: Content is protected !!