Breaking News
Home / প্রচ্ছদ / রোহিঙ্গা তরুনীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে ‍!!
রোহিঙ্গা তরুনীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে ‍!!

রোহিঙ্গা তরুনীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে ‍!!

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা রা বাংলাদেশে এসে নতুন করে সংকটে পড়েছেন তাদের তরুনী মেয়েদের নিয়। বিভিন্ন স্থানে আশ্রয় নেয়া প্রায় সব মেয়েদের বয়স ই ১৫-৫০ বছর। আশ্রয় দেবার কথা বলে তাদের দুর্বলতার সুযোগ নিতে চাচ্ছে দালালরা।

খবর নিয়ে জানা যায়, এক শ্রেনীর দালাল চক্র টেকনাফের উথিয়া সীমান্ত এলাকায় অবস্থান নিয়েছে। রোহিঙ্গা সুন্দরী মেয়েরা তাদের টার্গেট। সুন্দরী মেয়ে দেখলেই নানা কু প্র্ররোচনা দিচ্ছে তারা। থাকা খাওয়া চাকুরীসহ বিভিন্ন প্রলোভন দেখানো হচ্ছে রোহীঙ্গা তরুনীদের।

উখিয়ার বালুখালীতে আশ্রয় নিয়েছেন মায়ানমার থেকে আসা হামিদুল আজম। দুই মেয়ে আর এক ছেলেকে নিয়ে বাংলাদেশে এসেছে। তিনি বলেন আসার পথে দুইজন লোক তাদের বাড়িতে আশ্রয় দেবার কথা বলেছে, চাকুরীর সুযোগ ও করে দিবে বলেছে।

তিনি আরো বলেন, আজকে ও একজন ব্যক্তি কাজের কথা বলে ্‌আমার বড়ো মেয়েকে নিয়ে যাবার প্রস্তাব দেয়। আমি রাজি হই নি।

একই সমস্যায় পড়েছে টেকনাফের ধামনখালীতে আশ্রয় নেয়া নুরতাজ বেগম। তার সাথে আশা মেয়ের বয়স ১৬। তাকেও পরতে হয়েছে নানা ভোগান্তিতে।

তিনি আরও বলেন, আজকে (৯ সেপ্টেম্বর সোমবার) আবার রোহিঙ্গাদের আশ্রয়ে কাজ করে যাচ্ছি বলে একজন আমার বড় মেয়েকে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তাব দেন। আমি তাতে রাজি হয়নি। একই অভিযোগ করেছেন, টেকনাফে’র ধামনখালীতে আশ্রয় নেওয়া মধ্যবয়সী নুরতাজ। দুটি মেয়ে বিয়ে দিয়েছেন তিনি। এক ছেলের বউ এনেছেন। কিন্তু ছোট মেয়ে মনোয়ারাকে (১৬) নিয়ে পালিয়ে আসতে হলো তাকে। এখানেই এসেই যতো বিপদ। তার সুন্দরী মেয়েকে নিয়ে সে পড়েছে সমস্যায়। বাবা হারা মেয়েটি কেমন জানি ভীতস্থ। চেষ্টা করেও কথা বলানো সম্ভব হয়নি।

 

উখিয়া টেকনাফের সীমান্তবর্তী বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে কিছু যুবক কোন কারন ছাড়াই মোবাইল দিয়ে ছবি তুলছে এবং ভিডিও করছে। এদের আচরন ও গতিবিধি সন্দেহ জনক। তবে প্রশাসন এ ব্যাপারে কঠোর না থাকা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে রোহিঙ্গা সুন্দরী মেয়েদের বাবা মা রা। পাশা পাশি ঐ সব সুন্দরী তরুনীরা ও আতঙ্কে রয়েছেন।

এদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিতো রয়েছে। তবে তা প্রয়জনের তুলনায় অপ্রতুল। যার কারনে নিরাপত্তার প্রকট সঙ্কট বিরাজ করছে। নিরাপত্তার পাশাপাশি, নজরদারি বাড়ালে , লম্পট আর দালালের খপ্পর থেকে বাচবে প্রান নিয়ে বেচে আসা এসব তরুনীরা।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

About ahmed raju

ইন সা আল্লাহ নিউজ ঢাকা ২৪ এক দিন অনেক দূর এগিয়ে যাবে আপানাদের সাথে নিয়ে। :)

Check Also

জুরাইনে রাস্তায় পড়ে ছিল লাশ, আতঙ্কে কাছে যায়নি কেউ

নিজস্ব প্রতিবেদক রাজধানীর জুরাইন মুন্সিবাড়ি ঢালে প্রধান সড়কের পাশে মৃত অবস্থায় পড়েছিলেন নাসির উদ্দিন (৬৬) ...

কেরানীগঞ্জের বাজার গুলোতে নেই করোনা সচেতনতা ; মানা হচ্ছে না সামাজিক দুরুত্ব

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সরকার যেখানে সামাজিক দুরুত্ব বজায় রাখার কথা বলছে সেখানে কেরানীগঞ্জে অনেক জায়গায় মানা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *