করোনায় মারা গেলেন ৫ টাকার ডাক্তার

দুস্থ রোগীদের চিকিৎসায় ফি নিতেন মাত্র পাঁচ টাকা। এবার প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস নিল তার প্রাণ। পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার নৈহাটির বিধান রায় নামে পরিচিত চিকিৎসক হিরন্ময় ভট্টাচার্য (৫৭) করোনায় মারা গেছেন।

তীব্র শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত শনিবার রাতে কলকাতার বেলঘরিয়ার একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন গরিবের এই ডাক্তার। কয়েকদিন ধরেই জ্বর ছিল তার। সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় পরপর দুবার হার্ট অ্যাট্যাক হওয়ার ধাক্কা সামলাতে পারেননি এই চিকিৎসক।

পাঁচ টাকার ডাক্তার হিসেবে নৈহাটির পাশাপাশি গোটা ব্যারাকপুর মহকুমায় পরিচিত ছিলেন তিনি। স্বল্প ওষুধ দিয়ে রোগী সুস্থ করতেন বলে তাকে স্থানীয় বাসিন্দারা নৈহাটির ‘বিধান রায়’ বলতেন।

মূলত বক্ষবিশেষজ্ঞ হলেও সাধারণ ফিজিশিয়ান ও শিশু চিকিৎসাতেও তার সুনাম ছিল। লকডাউন হওয়ার পর কোভিডের ভয়ে যখন কেউ রোগী দেখেননি তখনও তিনি নিয়মিত চেম্বার করতেন। এই অতিমারির সময় একজন রোগীকেও ফিরিয়ে দেননি।

১৯৭৮ সালে মাধ্যমিক পাস করা হিরন্ময় আইএমএ রাজ্য শাখার একাধিক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। তার মৃত্যুতে পশ্চিমবঙ্গের চিকিৎসক মহলেও গভীর শোকের ছায়া নেমে আসে। এ নিয়ে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে বেশ কয়েকজন চিকিৎসক প্রাণ হারালেন।

কয়েকদিন আগেই ব্যারাকপুর মহকুমার শ্যামনগরে প্রদীপ কুমার ভট্টাচার্য নামে আরেক জনপ্রিয় চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত হয়ে মার যান। তিনিও গরিবের ডাক্তার হিসেবে পরিচিত ছিলেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ভ্যাকসিন আসার আগেই করোনায় মরতে পারে ২০ লাখ মানুষ: ডব্লিউএইচও

একটি কার্যকর ভ্যাকসিন গণহারে ব্যবহার হওয়ার আগেই করোনাভাইরাসে (কভিড-১৯) ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু দেখতে পারে …

error: Content is protected !!