করোনা আক্রান্ত হলেন সেচ্ছাসেবী আলী ইউসুফ

তাসনীমুল হাসান মুবিন, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ করোনার শুরু থেকেই করোনা রোগীদের জন্য নিবেদিত প্রাণ আলী ইউসুফ। করোনা রোগীদের সেবা, এ্যাম্বুলেন্স জোগাড়, মুমূর্ষ রোগীর জন্য অক্সিজেন সেবা নিয়ে ছুটে চলা, করোনায় মারা যাওয়াদের গোসল করানো, দাফন-সৎকারে ছুটে গেছেন দিনরাত। এতিমদের জন্য নতুন পোশাক- খাবার সহায়তার উদ্যোগ, প্রতিবন্ধিদের সহায়তায় কাজ করা কিংবা ছোট্ট শিশু আহাদের হার্টের ছিদ্র অপারেশনের টাকার যোগার করা, কি করেন নি তিনি।

অসহায়দের জন্য সবসময় দাড়িয়েছেন আস্খার প্রতীক হয়ে। যে কোন অন্যায় ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে তিনি সবসময় সোচ্চার। সামনের সারির করোনা যোদ্ধা আপাদমস্তক পরোপকারী ইউসুফ করোনা আক্রান্ত।

বন্ধু-বান্ধব, আপনজন, পরিচিতজন, প্রতিবেশি এমনকি সকল মানুষের জন্য নিবেদিত একজন মানুষ আলী ইউসূফ। যিনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী। পাশাপাশি সমাজকর্মী, সংগঠকসহ আরো অনেক কাজের সাথে জড়িত এই মানুষটি। সবচেয়ে বড় কথা হলো বিপদে সবার আগে যে মানুষটি এগিয়ে আসেন তিনিই আলী ইউসূফ। যাকে বলা হয় একজন মানবীক মানুষ।

বর্তমান সময়ে এমন মানুষ পাওয়া খুবই দুরুহ ব্যাপার। যার কাজ অন্যের উপকার করা। সত্যকে সত্য বলা। মিথ্যাকে মিথ্যা বলা। সাদাকে সাদা আর কালোকে কালো বলতেও তিনি তার আদর্শিক জায়গা থেকে সরে দাড়ান না। কারন সততাই হচ্ছে তার সবচেয়ে বড় শক্তি। তিনি কোন টাকাওয়ালা বা ক্ষমতাধর ব্যক্তিনা। তারপরও অন্যের বিপদে ছুটে আসেন বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে। কার রক্ত লাগবে, কার চিকিৎসার জন্য টাকা লাগবে, কার ঘরে খাবার লাগবে, কার সন্তানের লেখাপড়ার খরচ লাগবে সবার বিপদে পাশে দাড়ান আলী ইউসূফ। কোন অসুস্থ ব্যাক্তির জন্য রক্ত লাগবে সেটাও ব্যবস্থা করে দেন আলী ইউসূফ। এমনকি তার মায়ের মৃত্যুবাষির্কী উপলক্ষে পঞ্চাশতম বারের মত রক্ত দান করলেন তিনি নিজেই। রক্ত দেওয়া শুরুটা ১৯৯২ সালে। তখন তিনি উচ্চমাধ্যমিকের ছাত্র।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

খুলনায় কাল থেকে সাতদিনের লকডাউন

মোঃআশরাফুল ইসলাম খুলনা সদর প্রতিনিধিঃ খুলনায় করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেড়েই চলছে, তার সাথে পাল্লা দিয়ে …

error: Content is protected !!