ঈদকে সামনে রেখে কামারদের ব্যাস্ত সময় পার

জেলা প্রতিনিধিঃ কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে নাটোরের লালপুরের কামার পল্লীগুলো সরব হয়ে উঠেছে। কোরবানির পশু জবাই ও মাংস প্রস্তুতের জন্য এখন চলছে ছুরি-চাপাতি কেনার হিড়িক। চাপাতি, দা,বঁটি, চাকু, ছুরিসহ কোরবানির নানা হাতিয়ার তৈরি ও শাণ দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কামাররা।

সরজমিনে দেখা যায়, সকাল থেকে সারা রাত পর্যন্ত দা, ছুরি, বঁটি, চাপাতি, হাসুয়া তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে কামার শিল্পের কারিগররা। এছাড়া কামারদের দোকানগুলোতে বেচাকেনা ও মেরামত কাজেও উপচে পড়া ভিড়।

উপজেলায় প্রায় ২ শতাধিক কামার পরিবার রয়েছে। বর্তমান আধুনিকতার ছোঁয়ায় কামারদের তেমন কোনো কাজ না থাকায় এসব পরিবারের অনেকেই তাদের বাপ-দাদার পেশা ছেড়ে দিয়ে অন্য পেশায় জড়িয়ে পড়েছে।

উপজেলার লালপুর কলেজ মোড়ের নব কামার জানান এখন আর আগের মতো কাজ নাই, ঈদের সময় ছাড়া কোনো কাজ থাকে না। তাই সারা বছর সংসার চালাতে বেগ পেতে হয়।

জোতদৈবকী গ্রামের রবি ও প্রশান্ত কর্মকার জানান,সারা বছরেই টুকটাক কাজ হয়। তবে ঈদের সময় তুলনামুলক একটু বেশি কাজ হয়। লালপুর বাজারের দুলাল কম’কার জানান সারা বছর দোকান খুলে বসে থাকেন। তেমন কোনো কাজ কর্ম থাকে না কোনো প্রকারে খেয়ে না খেয়ে সংসার চলে। তারা কুরবানি ঈদের অপেক্ষায় থাকেন। কুরবানি ঈদকে সামনে রেখে মুসলমাদের প্রতিটি ঘরে ঘরে নতুন কিংবা পুরনো দা, ছুরি ও বঁটি চাপাতি হাসুয়া মেরামত করতে হয়। তাই এ সময় দোকানে অনেক কাজের ভিড় থাকে। তাই আমরা দিনরাত্রি কাজ করলে আমাদের পরিবারের অভাব কাটিয়ে কিছু দিনের জন্য স্বচ্ছলতা আসে।

জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা লালপুর উপজেলা শাখার সভাপতি সালাউদ্দিন বলেন ঈদে পশু কোরবানির জন্য দা, ছুরি মেরামত করতেই হবে।এই সুযোগে কোন কোন কামার বেশী দাম নিচ্ছে।কিন্তু কিছু করার নেই প্রয়োজনের তাগিদে মেরামত করতেই হবে।

লালপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি ও লালপুর বার্তা পত্রিকার সম্পাদক আব্দুল মুত্তালেব রায়হান জানান, পশু কুরবানির জন্য দা, ছুরি মেরামত করতেই হবে, কোন কোন কামার চড়া দাম নিচ্ছে, তবুও প্রয়োজনের তাগিদে মেরামত করতেই হচ্ছে।

দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের ভেল্লাবাড়ীয়া এলাকার সমাজসেবক, শিক্ষক, সাহিত্যিক, ক্রীড়া সংগঠক ও সাংবাদিক আব্দুর রশীদ মাষ্টার বলেন বর্তমানে বাংলাদেশে তাঁতশিল্প, মৃৎশিল্প, কাঁসা শিল্প প্রায় বিলুপ্ত হয়ে গেছে। এভাবে চলতে থাকলে কামার শিল্প একদিন বিলুপ্ত হয়ে যাবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

খুলনায় কাল থেকে সাতদিনের লকডাউন

মোঃআশরাফুল ইসলাম খুলনা সদর প্রতিনিধিঃ খুলনায় করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেড়েই চলছে, তার সাথে পাল্লা দিয়ে …

error: Content is protected !!