লালপুরে পানিবন্দী ৬ শতাধিক পরিবার

জেলা প্রতিনিধিঃ ভারি বর্ষণ ও পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় জলাবদ্ধতা তৈরি হয়ে পানিবন্দী হয়ে পড়েছে নাটোরের লালপুর উপজেলার প্রায় ৬শতাধিক পরিবার। এতে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন শিশু ও বয়স্করা।

শনিবার (২৫ জুলাই) সরেজমিনে দেখা গেছে, নিষ্কাশন ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানি জমে উপজেলার বিলমাড়ীয়া ইউনিয়নের ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের মোহরকয়া ভাঙ্গাপাড়া, মধ্যপাড়া, গোরস্থানপাড়ার প্রায় ৫ শতাধিক পরিবার ১০ দিন যাবত পানিবন্দী হয়ে আছেন। বসত ঘর ও বাড়ির উঠানে জমে আছে হাঁটু সমান পানি। প্রতিদিন পানি পেরিয়ে তাদের দৈনন্দিন কাজ করতে হচ্ছে।

এছাড়া নাগশোষা গ্রামের অর্ধশতাধিক বাড়ি মাসজুড়েই পানিবন্দী রয়েছে। এ গ্রামের বাসিন্দা মাসুদ রানা জানান, বহু পুর্ব থেকে বৃষ্টির পানি বের হওয়া ব্রীজ ও কালভার্ট বন্ধ করে বাড়ি নির্মাণ করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘ সময় পনিবন্দী থাকায় পরিবারগুলোতে পানি বাহিত রোগসহ বিভিন্ন সদস্যা দেখা দিতে শুরু করেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা আবজাল হোসেন, রাসেল, সিরাজুল, মান্নান বলেন, আগে যে দিক দিয়ে এই তিন গ্রামের পানি নিস্কাশন হতো সেই জাইগায় মাটি দিয়ে বন্ধ করার ফলে এবার আষাঢ়ের লাগাতার বৃষ্টির পানি জমে তাদের বাড়িতে উঠেছে। তারা আরো জানান, পানি নিস্কাশনের জন্য সড়ক কেটে বিকল্প ভাবে পানি বের করা হচ্ছে ।

বিলমাড়ীয়া ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিন্টু বলেন, অপরিকল্পিত বাড়ী ঘর হওয়ায় পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা নষ্ট করে ফেলেছে। ড্রেন বন্ধ করে দেওয়ার ফলে পানি নামতে পারছে না। স্থানীয় লোকজন বিকল্প পথে পানি বের করার ব্যবস্থা করেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় সংসদ সদস্যের সাথে যোগাযোগ করে স্থায়ী ব্যবস্থা করার চেষ্টা করব।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

জটিল এনজিওপ্লাস্টি সফলভাবে সম্পন্ন হলো এভারকেয়ার চট্টগ্রামে

নিজস্ব প্রতিবেদক জটিল এনজিওপ্লাস্টি সফলভাবে সম্পন্ন করলো বন্দরনগরীতে অবস্থিতে এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম। সিনিয়র কনসালটেন্ট অধ্যাপক …

error: Content is protected !!