কেরানীগঞ্জে জাতীয় পার্টির অনুষ্ঠানে ত্রান বিতরনে জনসাধারনকে লাঞ্চিত করার অভিযোগ

ঢাকার কেরানীগঞ্জে জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা হোসাইন মোহাম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে কুলখানি ও ত্রান বিতরনের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে ত্রান নিতে আসা লোকজনকে লাঞ্চিত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ত্রান নিতে আসা অনেকে।

জানা যায়, গতকাল ১৮ জুলাই শনিবার করানীগঞ্জের চুনকুটিয়া বেবি স্ট্যান্ড এর রাজ কমিউনিটি সেন্টারে কেরানীগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পাটির উদ্দ্যোগে হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে কুলখানি ও ত্রান বিতরনের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির বর্তমান চেয়ারম্যান জি এম কাদের। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মশিউর রহমান রাঙা এমপি। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন হাজী মো: রমজান আলী ভূইয়া।অনুষ্ঠানে দোয়া মাহফিল শেষে অসহায় দুস্থদের জন্য ত্রান বিতরনের

ব্যবস্থা করা হয়। আগত অতিথিরা চলে যাওয়ার পরে ত্রাণ বিতরন নিয়ে হট্টোগোল শুরু হয়। পরে হাজী মো: রমজান আলী ভূইয়া সবাইকে ত্রান নেয়ার জন্য চুনকুটিয়া তার নিজ বাড়ির সামনে যেতে বলেন। কিন্ত তার বাড়ির সামনে গেলে তিনি কাউকে ত্রান না দিয়ে কয়েকজনের গায়ে হাত তুলেন বলে অভিযোগ করেন ত্রান নিতে আসা কয়েকজন।

দিলারা বেগম নামে এক নারী বলেন, সকাল ৯ টা থেকে ত্রানের জন্য দাড়িয়ে আছি, ত্রান তো পেলাম না উল্টা রমজান আলী গায়ে হাত তুললো বকা ঝোকা করলো।

মোসাদ্দেক নামে এক ব্যাক্তি বলেন, ত্রান দেয়ার কথা বলে এরা একবার বলছে গার্লস স্কুল যেতে একবার বলছে ব্রীজের সামনে যেতে ।খামাখা এতোগুলো মানুষকে হয়রানি করছে । এরা পেয়েয়ে কি ?আমাদের কি মানুষ ভাবে না।

রেহানা আক্তার নামে আরেক নারী অভিযোগ করে বলেন, গরীব মানুষআমরা , অনেক কষ্ট করে ¯িøপ পেয়েছি ভাবলাম সহায়তা পাবো কিছু। সকাল থেকে লাইনে দাড়িয়েছিলাম। সহায়তা তো পেলাম না। উল্টা এতোগুলো লোককে ধাক্কা দিয়ে বের করে দিলো।

এ ঘটনায় রমজান আলী ভূইয়া বলেন, ৪০০ পরিবারকে ত্রান দিয়েছি কোন মারামারি হয় নি৷

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

অগ্নি নির্বাপন

কেরানীগঞ্জ গার্মেন্টস পল্লীর অধিকাংশ দোকানেই নেই কোন অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা !

ঢাকার কেরানীগঞ্জের কালিগঞ্জ গার্মেন্টস পল্লী অগ্নিকান্ডের জন্য অত্যন্ত ঝুকিপূর্ন একটি এলাকা। এখানে রয়েছে প্রায় ৮ …

error: Content is protected !!