ভোগান্তি

সারা বছর পানি জমে থাকে রাস্তায় ; ভোগান্তিতে দুই ইউনিয়নের জনগন

বর্ষা মৌসুমে কম বেশি সব রাস্তায় একটু কাদা পানি দেখা যায়। কিন্ত কেরানীগঞ্জের জিনজিরা ইউনিয়নের মনু বেপারীর ঢাল হতে বোরহানিবাগ রাস্তার চিত্রটি সম্পূর্ন ভিন্ন। সারা বছর ই পানি জমে থাকে এই রাস্তাটিতে। রাস্তটি জিনজিরা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড এবং কালিন্দী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের মাঝে হওয়ায় কেউ দায়িত্ব নিতে চায় না রাস্তাটির। ফলে দুর্গন্ধযুক্ত ড্রেনের ময়লার পানিতে বেহাল দশা রাস্তাটির। প্রতিদিন ভোগান্তি তে পড়তে হয় এই রাস্তা দিয়ে পাড় হওয়া হাজার হাজার জনসাধারনের।

সরেজমিন কেরানীগঞ্জের মনু বেপারীর ঢালে গিয়ে দেখা যায় ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় রাস্তাটি দুর্গন্ধযুক্ত ময়লা পানিতে ডুবন্ত অবস্থায় রয়েছে। এই পানি মারিয়েই চলাচল করছে এখানকার বাসিন্দারা। আশে পাশের বাসাবাড়ির বাসিন্দারা ময়লা পানির দুর্গন্ধে নাকাল হয়ে যাচ্ছে। রাস্তার দুই পাশের দোকানদারদের এই ময়লা পানির কারনে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। এগুলো যেন দেখার কেউ নেই।


নাক চেপে রাস্তা পার হচ্ছে ইশরাত। তিনি বলেন দুর্গন্ধের কারনে ঘর্ওে টেকা যায় না। বাচ্চাদের সমস্যা হয়। অনেক দিন ধরে এই পানিগুলো জমে আছে। এগুলোতে মশাও হচ্ছে । প্রতিদিন এই পানি মারিয়ে বাসায় আসতে হয়। ফলে নানান ধরনের চর্ম রোগ হয় অনেকের।
এই রাস্তার ভুক্তভোগী মো: কালাম নামে এক মুদি দোকানী বলে, প্রায় ২ বছর ধরে রাস্তাটির এ অবস্থা। এখন কাষ্টমাররা ময়লা পানির কারনে এখানে আসতে চায় না। বেচা কেনা অনেক কমে গেছে, দুর্গন্ধ তো আছেই। অনেক সমস্যায় আছি আমরা এলাকাবাসী।

কালামের সঙ্গে যোগদেন মো: মামুন। তিনি বলেন, এখানে সারা বছর ই পানি জমে থাকে। দুই ওয়ার্ডের সীমানায় রাস্তাটি হওয়ায় কেউ আমাদের সমস্যা দেখে না। দুই মেম্বারের ঠেলাঠেলিতে আমরা এলাকাবাসী ভোগান্তিতে আছি।
মো: পারভেজ নামে এক এলাকাবাসী জানান, প্রায় সময় ই ছোটখাট দুর্ঘটনা ঘটে এই রোডটিতে, রিক্সা উল্টে যায়। দ্রæত সংস্কার করা উচিত। না হলে বড়ো দুর্ঘটনা ঘটতে সময় লাগবে না।

এলাকার আরো কয়েকজন বাসিন্দার সাথে কথা বললে তারা জানান, যখন রাস্তার কাজটি করা হয় তখন ড্রেনেজ লাইনের কাজ ঠিক মতো করা হয় নি। তাই রাস্তার এ অবস্থা। বৃষ্টি হলে রাস্তায় অনেক পানি থাকে। সে সময় চলাচলের অবস্থা থাকে না। মেম্বার চেয়ারম্যানদের একাধিকবার জানানো হলেও তারা কোন পদক্ষেপ ই নেয় নি।

এ বিষয়ে জিনজিরা ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বার নাজির হোসেন জানান, রাস্তাটি দীর্ঘদিন যাবৎ এ সমস্য। আশেপাশের বাড়ি নির্মানের সময় রাবিশগুলো ড্রেনে ফেলেছে এলাকাবাসী। তাই ড্রেন ভরে গিয়ে রাস্তায় জলাবদ্ধতা তৈরী হয়েছে।দ্রæত সমস্যা সমাধানের কাজ চলছে।

জিনজিরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাকুর হোসেন সাকু বলেন, ড্রেনেজ ব্যবস্থায় সমস্যা থাকার কারনে রাস্তাটিতে পানি থাকে। দ্রæত ড্রেনেজ ব্যবস্থা সংস্কারের কাজ শুরু করা হবে। সোয়ারেজ লাইন সংস্কার করা হলে আশা করি পানি থাকবে না।

কালিন্দী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো: মোযাম্মেল হোসেন বলেন, রাস্তার পানি পরিষ্কার করার জন্য বেকু ব্যবহার করেছি। নতুন করে ড্রেন নির্মান করতে হবে। দ্রæতই ড্রেন নির্মানের ব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা ইঞ্জিনিয়ারের সাথে কথা বলেছি। দ্রæতই কাজ ধরা হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

শিমুলিয়া কাঠাঁলবাড়ি অচলাবস্থা কারণে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় যানবাহনের লম্বা সাড়ি

শেখ রনজু আহাম্মেদ (রাজবাড়ী প্রতিনিধি) শিমুলিয়া কাঠাঁলবাড়ি নৌরুটের অচলাবস্থার কারনে যাত্রী ও যানবাহনের লম্বা সাড়ি …