জীবিকার তাগিদে

অামারও একদিন সময় অাসবে

স্বাধীন। মায়াবী এক মুখ। পিতা হারা ছোট্ট একটা ছেলে। কতই বয়স হবে? ৯ থেকে ১০ বছর। এই বয়সেই জীবিকার তাগিদে রাজশাহীর এক কাঠের দোকানে কাজ করে সে।বড় হয়ে ছেলে দক্ষ কাঠমিস্ত্রি হবে, ভালো টাকা রোজগার করবে, ঘুচবে অভাব। এমনই অাশায় ছেলেকে কাঠের দোকানে রেখে যায় স্বাধীনের মা।

পাশেই একটা মুদি দোকান, মাঝে মধ্যেই মহাজনের জন্য সিগারেট নিতে অাসে ছেলেটি। সেখানেই কথা হয় ছেলেটির সাথে। সময়ের অভাবে জানা হয় নি তার ছোট্ট জীবনের সংগ্রামী গল্প। সিগারেট নিয়ে যেতে দেরি হলেই যে, তার কপালে জুটবে শনি দশা। এই ভাবেই অল্প অল্প করে স্বাধীনের ছন্দহারা জীবনের গল্পগুলো বড় হতে থাকলো অামার ডাইরীর পাতায়।

“তুই অামাক ভাই বলে ডাকবি না, মহাজন বলে ডাকবি, তা নাহলে এখানে কাজ করতে পারবি না। এই কথা শুনেই অামার মাথায় অাকাশ ভেঙে পড়ছে, নিজের ভাইয়ের এমন কথা শুনে খুব কষ্ট পাইছি” এমনি সাবলীলভাবে জানায় তার দুঃখ, ক্ষোভ, অভিমান অার তার স্বপ্নের কথা। কথায় উঠে অাসে তার ফুপাতো ভাইয়ের এমন নির্মমতা। নিজের ফুপাতো ভাইয়ের দোকানেই তার এই অবস্থা, এই শহরে তার অাপন বলতে কেউ নাই। সত্যিই সে একা বললও অনেক অভিমান নিয়ে। পালিয়েছিলোও একবার, মা যে অাবার রেখে গেছে ছেলের ভবিষ্যতের অাশায়।

ইচ্ছে ছিলো কাজের ফাঁকে পদ্মার পাড়ে ঘুড়তে যাবে একদিন, রাজশাহীতে মাস চারেক থাকা হলেও মানুষ মুখে শুনা পদ্মা পাড় দেখা হয় নি তার। ভাইকে বলেছিল তার ইচ্ছের কথা। ভাই বলে, “তোর সাথে যাব না, তুই একা যা”। দিনে দিনে জানতে চেয়েছিলাম তার স্বপ্নের কথা, ক্ষোভ নিয়েই বলল, বড় হলে আমারও একদিন সময় আসবে তখন আমিও দেখবো….

এমন ঘটনা দেখলে মর্মাহত হই। প্রচন্ড কষ্ট অনুভব করি। প্রশ্ন জাগে এসকল মানুষ কারা? যারা এসব শিশুকে কাজে লাগিয়ে নিজের ভীত গড়ে, শিশু মনকে তৈরি করে প্রতিশোধের নেশা। স্বপ্ন দেখে বড় হলে সেইও এমন নির্মম হবে, সময় একদিন তারও অাসবে। বিভিন্নজনের কাছে হয়তো এই প্রশ্নগুলোর বিভিন্ন উত্তর আছে। তবে এমন হাজারো স্বাধীনের ভবিষ্যত কি? তাদের এমন ক্ষোভ কিসের বহিঃপ্রকাশ? এমন দিন কবে আসবে যেদিন একজন শিশুকেও এমনভাবে জীবিকার তাগিদে অাসতে হবে না নিজের মাকে ছেড়ে এজানা এমন শহরে একাকি হয়ে, শইতে হবে না এমন নির্যাতন। মুক্ত পৃথিবীতে স্বাধীনদের বর্ণমালার ফুল ঝুড়িতে মুখরিত হবে শিক্ষাঙ্গন। আদৌ তেমন দিন কি আসবে?

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,আজ জবি সাংবাদিক সমিতির ১৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

পরিত্যক্ত ভবনের

নাটোরে সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিদ্যালয় ভবন ভাঙার অভিযোগ

সরকারি অনুমতি ছাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিত্যক্ত ভবনের বারান্দা, দেওয়াল ও খুঁটি ভাঙ্গার অভিযোগ উঠেছে বিদ্যালয় …