হামলার ঘটনা

তুচ্ছ ঘটনায় চৌগাছায় জবি শিক্ষার্থীর পরিবারের উপর হামলা

যশোরের চৌগাছায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) এক শিক্ষার্থীর পরিবারের উপর ২ বার হামলার ঘটনা ঘটেছে।হামলায় ওই শিক্ষার্থীর বাবা গুরুতর আহত হয়েছেন।এঘটনায় চৌগাছা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

জানা যায়, সোমবার (২৪ জুন) চৌগাছা থানার স্বরুপদাহ ইউনিয়নের সাঞ্চাডাঙ্গা গ্রামে আব্দুর রশিদের (শিক্ষার্থীর বাবা) নতুন রোপন করা ধান ক্ষেত একই গ্রামের আমিনুর রহমানের (৪০) গরু দ্বারা বিনষ্ট হয়। এনিয়ে আমিনুরের ছেলে রিয়াদের (১৭) সাথে আব্দুর রশিদের তর্ক বিতর্ক হয়। তর্কের এক পর্যায়ে ক্ষুদ্ধ হয়ে আব্দুর রশিদকে মারতে থাকে রিয়াদ। পরবর্তীতে রশিদের আহাজারি শুনে কয়েকজন তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে।

মারধরের প্রত্যক্ষদর্শী আবু কালাম ও সবুজ বলেন, ছোট ঘটনা নিয়ে উভয়ের মধ্যে তর্ক শুরু হয়। এক পর্যায়ে রিয়াদ রশিদকে মারতে থাকে। পরে রশিদের আহাজারি শুনে আমরা সেখানে গিয়ে তাকে উদ্ধার করি।

এঘটনা মীমাংসার জন্য রিয়াদের বাবা আমিনুরকে গ্রামের সালিশে আসতে বললে তিনি বলেন, আমার ছেলে কারো গায়ে হাত দেয়নি। আমি গ্রামের কোন মানুষের ধার ধারি না। কে কি করতে পারে দেখে নিব। এসময় লাঠিসোটা নিয়ে আমিনুরসহ তার ভাই শাহিনুর, ভাই জামীর, ছেলে রিয়াদ ও ভাতিজা সোহাগকে অশ্রাব্য ভাষায় গালি দিতে দেখা যায়। রাতে গ্রামের সালিশিতে অভিযুক্ত হামলাকারীরা না আসলে গ্রামের লোকজন তাদের নিন্দা করে এবং ঘটনা এখানেই শেষ হবে বলে সবাই মনে করে।

কিন্তু পরেরদিন (২৫ জুন) সকাল ৭ টায় আব্দুর রশিদের ওপর পুনরায় হামলা করে আমিনুর, শাহিনুর, জামীর (ভোলা), রিয়াদ ও সোহাগ। লাঠি দিয়ে মারতে মারতে  শাহিনুর বলেন আমার ভাতিজার গায়ে হাত দিয়েছিস, তোর কে আছে দেখে নিব। এসময় উপস্থিত একই গ্রামের পেন্টু ও আলম মারার সময় তাকে উদ্ধার করে।

প্রত্যক্ষদর্শী পেন্টু বলেন, রশিদ গ্রামের নিরীহ মানুষ। সবাই জানে সে কারো সাথে ঝামেলা করে না। আমি দেখলাম তারা রশিদকে লাঠি দিয়ে মারছে। আমি তাকে উদ্ধার করতে গিয়েও লাঠির বাড়ি খেয়েছি।

বাবাকে শারীরিক নির্যাতনের ঘটনায় জবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ওই শিক্ষার্থী বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গতকাল বিকালে আমার বাবাকে মারা হয়। ঘটনা শুনে সহজে সমাধানে আমি গ্রামের মুরব্বীদের নিয়ে সালিশ ডাকি। কিন্তু তারা না এসে বলে আমরা গ্রামের কাউকে মানি না। অথচ আজ সকালে আমিনুর, শাহিনুরসহ তাদের ভাই ও ছেলেরা একা পেয়ে আমার বাবার উপর পুনরায় হামলা করে। আমি এর বিচার চাই।

এই হামলার ব্যাপারে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, এক শিক্ষার্থীর পরিবারের উপর হামলার কথা শুনেছি। আমরা ওই এলাকার স্থানীয় প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নিব।

চৌগাছা থানার ওসি রিফাত রাজিব বলেন, এক পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরী হয়েছে। তদন্তসাপেক্ষে আমরা পরবর্তী ব্যবস্থা নিব।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,কেরানীগঞ্জে ডিবি পুলিশের হাতে দেশীয় অস্ত্রসহ তিন ডাকাত গ্রেপ্তার

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

বুড়িগঙ্গা নদীর

বুড়িগঙ্গা নদীতে ভাসমান অবস্থায় বস্তা বন্দী যুবকের লাশ উদ্ধার

বুড়িগঙ্গা নদীর পোস্তগোলা ব্রীজ এলাকায় মাঝ নদী থেকে অজ্ঞাত এক যুবকের (৩৫) লাশ উদ্ধার করেছে …