ঈদে পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের পাশে এসিল্যান্ডের সারথি ফাউন্ডেশন

যারা আমাদের বাড়ি ঘরের ময়লা আবর্জনা সংগ্রহ করে নির্দিষ্ট স্থানে নিয়ে ফেলে, সেই পরিচ্ছন্ন কর্মীরা এমনিতেই কষ্টে ও মানবেতর জীবন যাপন করে। করোনাভাইরাসের কারনে খেটে খাওয়া এই পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা আরো অসহায় হয়ে পরেছে এমনিতেই তিন বেলা খাবার যোগার করতে কষ্ট হয় তাদের, তার উপরে করোনা আতঙ্ক। কেরানীগঞ্জের অসহায় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের ঈদ উপহার দিয়ে তাদের মুখে হাসি ফুটালেন কেরানীগঞ্জের এসিল্যান্ড (ভ’মি,মডেল) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেলের সারথি ফাউন্ডেশন।

শনিবার (২৩ মে) দুপুরে আগানগর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে সারথি ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে শতাধিক পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের হাতে এই ঈদ উপহার তুলে দেয়া হয়। ঈদ উপহারের মধ্যে ছিলো পোলাউ চাল, চিনি, সেমাই, তেল, ডাল, ভাতের চাল। এসময় উপস্থিত ছিলেন আগানগর ইউনিয়ন ৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার দেলোয়ার হোসেন দিলু ও ৬ নং ওয়ার্ড মেম্বার মো: শাহীন এবং পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের ঠিকাদার মো: সিদ্দিকুর রহমান।


খাদ্য উপহার পেয়ে সুলতান নামে এক পরিচ্ছন্নতা কর্মী বলেন, করোনার কারনে তিনবেলা খাবারের টাকা যোগাড় করতেই এখন কষ্ট হয়। স্যারের মাধ্যমে আজকে কিছু চাল ডাল পেলাম আল্লাহ স্যারের ভালো করুক।
ঠিকাদার মো: সিদ্দিকুর রহমান বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে প্রতিমাসে বাড়ি বাড়ি থেকে যে বিল কালেকসন করি তা আটকে গেছে। টাকা কালেকশন করতে না পারায় কর্মীদের খরচ দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। শুনেছি আমাদের এসিল্যান্ড স্যার কেরানীগঞ্জবাসীকে সেবা দিতে গিয়ে নিজেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। অসুস্থ হয়ে বাসায় চিকিৎসাধীন থেকেও তিনি আমাদের জন্য সহায়তার ব্যবস্থা করেছেন। আমাদের পক্ষ থেকে তার প্রতি রইলো কৃতজ্ঞতা ও অনেক দোয়া। ভালো লাগছে তার কারনে পরিচ্ছন্নতা কর্মীর মুখে হাসি ফুটবে।


এ বিষয়ে কামরুল হাসান সোহেলের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান,  পত্রিকায় কেরানীগঞ্জের পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের নিয়ে প্রতিবেদনটি পরি। তখন ই সিন্ধান্ত নেই পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের জন্য কিছু একটা করবো। এরপর তো নিজেই করোনায় আক্রান্ত হয়ে গেলাম। তার পরেও তাদের জন্য কিছু একটা করতে পেরে আনন্দিত। এ মহৎ উদ্যাগের সাথে ছিলেন সারথি ফাউন্ডেশনের শুভাকাঙ্খী কেরানীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগন। তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। দেশ বর্তমানে একটি কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে আমাদের আন্তরিক হতে হবে। যার যার সামার্থ্য অনুযায়ী অসহায়দের পাশে থাকতে হবে। তাহলেই হাসি ফুটবে সবার মুখে।

উল্লেখ্য কেরানীগঞ্জে ১২টি ইউনিয়নে প্রায় ৩০০ জন পরিচ্ছন্নতা কর্মী রয়েছে । করোনা পরিস্থিতিতে তারা মানবেতর জীবন যাপন করছে। ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

কেরানীগঞ্জে নতুন করে ৭ জনের করোনা শনাক্ত ; মোট আক্রান্ত ৪৬৫

কেরানীগঞ্জে  নতুন করে আরো ৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।  এ নিয়ে কেরানীগঞ্জে মোট করোনায় শনাক্ত …

error: Content is protected !!