অবৈধ ভাবে

অবৈধ ভাবে বুড়িগঙ্গা ভরাটের সময় এমপি হাজী সেলিমের ৩ কর্মচারী গ্রেপ্তার

ঢাকার কেরানীগঞ্জের ঝাউচার এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীর তীরবর্তী অংশ অবৈধ ভাবে ভরাটের সময় ঢাকা-৭ আসনের  এমপি হাজী সেলিমের ৩ কর্মচারীকে আটক করেছে বিআইডব্লিউটিএ কতৃপক্ষ । পরে তাদের বিরুদ্ধে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং -০৫। আটককৃতরা হচ্ছেন: মাসুম সৈকত (৪২), সুদান শু (৪১), জসিম আকন (৩৪)।

বিআইডব্লিউটিএ’র যুগ্ম পরিচালক (ঢাকা নদীবন্দর) এ কে এম আরিফ উদ্দিন  জানান,  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা জানতে পারি কেরাণীগঞ্জের ঝাউচর এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদী, নদীর সীমানা পিলারের অভ্যন্তরে সরাসরি নদীগর্ভের বিপুল পরিমান অংশ ডাম ট্রাকের মাধ্যমে রাবিশ দিয়ে ভরাট করছে কয়েকজন ব্যাক্তি।

খবর পেয়ে রাত ২.৩০ মি: এ অতর্কিতে বিআইডব্লিউটিএ’র ঢাকা নদী বন্দরের আনসার বাহিনী ও বসিলা ফাঁড়ির নৌপুলিশের যৌথ অভিযানে হাতে নাতে ৭ জন ভরাটকারীকে আটক করি এবং ২ টি ডাম ট্রাক ও ১ টি ভেকু জব্দ করি। এরা ড্রাম ট্রাকের সম্মুখ গ্লাসে বিআইডব্লিউটিএ’র লোগো ও ড্রেজিং বিভাগের “জরুরী মাটি অপসারণের কাজে নিয়োজিত” লেখা সম্বলিত স্টীকার লাগিয়ে প্রতারনাও করছিলো।

আটকের পরে জানতে পারি এরা ঢাকা -৭ আসনের এমপি হাজী সেলিমের মালিকানাধীন মদিনা মেরিটাইম লিমিটেডের কর্মচারী। গত বছরও এই জায়গাতেই গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে একই প্রতিষ্ঠানের ৬ জনকে আটক করে মামলা দেয়া হয়েছিলো।

আটককৃত মদিনা মেরিটাইম লিমিটেডের জুনিয়র সুপারভাইজার জসিম আকন জানান, হাজী সেলিম সাহেবের চকবাজারের পুরাতন একটা বিল্ডিং ভেঙে রাবিশ এখানে ফেলা হচ্ছে। রাবিশ ফেলে নদী ভরাট করে এখান থেকে বসিলা ব্রীজ পর্যন্ত যাতায়াতের রাস্তা করা হচ্ছে। এমপি সাহেবকে কয়েকবার বলেছি এটা অন্যায়। আমরা তো কাজ করি, সে জোড় পূর্বক আমাদের দিয়ে এ কাজ করাচ্ছে। তার এক কথা চাকরী করতে হলে আমার এ কাজ করতে হবে। আমরা তো পেটের দায়ে করি।

এ কে এম আরিফ উদ্দিন আরো বলেন, ঢাকার প্রাণ এর চারপাশের নদীগুলোকে বাঁচাতে সরকারের পক্ষ থেকে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে । প্রাণপন চেষ্টা চলছে অবৈধ দখল-দূষণমুক্ত করে নদীর প্রশস্ততা ও গভীরতা বৃদ্ধি করে মৃতপ্রায় নদীগুলোকে পুনরুজ্জীবিত করে নদীর পাড়ে স্বাস্হ্যসম্মত পরিবেশ গড়ে তোলার। অথচ নানা কৌশলে এখনো চলছে নদী দখল। সময় হিসেবে গভীর রাতকে বেছে নেয়া হচ্ছে। ভরাটের উপাদান হিসেবে বিশেষভাব ব্যবহার করা হচ্ছে পুরাতন বিল্ডিং ভাঙার আধলা ইট-রাবিশ। একটা কথা স্পষ্ট বলতে চাই, প্রধানমন্ত্রীর স্পষ্ট নির্দেশ নদী দখলকারী যতো বড়োই হোক না কেন তার কোন ছাড় নাই। তাকে আইনের আওতায় আনা হবেই।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী মাইনুল ইসলাম পিপিএম বলেন, এ বিষয় নৌ পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় পেনাল কোডে ৪৩১/৩৪ ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।#

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,কেরানীগঞ্জে র‌্যাবের হাতে ছিনতাইকারী আটক

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

বাবা মানে বটবৃক্ষের ছায়া,আজ বাবা দিবস!

জহিরুল ইসলাম মিলন,টাঙ্গাইল (ধনবাড়ী) প্রতিনিধিঃ- বাবা মানে বটবৃক্ষের ছায়া। বাবা মানে নির্ভরতা। সন্তানের প্রতি পিতা …

error: Content is protected !!