করোনায় কেরানীগঞ্জে অসহায়দের বিনামূল্যে ঔষুধ বিতরন করলেন ডা: হাবিবুর রহমান

নভেল করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ প্রভাবে অনেক নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছে।  অসহায় এই পরিবারগুলোর পাশে দাড়িয়েছে বিভিন্ন ব্যাক্তিবর্গ ও সামাজিক সংগঠন। কেরানীগঞ্জের প্রায় তিন হাজার অসহায় পরিবারের মাঝে বিনামূল্যে ঔষধ বিতরন করলেন মানবিক ডাক্তার ডা: হাবিবুর রহমান।

জানা যায়, কেরানীগঞ্জের বিভিন্ন সামাজিক  সংগঠনের মাধ্যমে অসহায় পরিবারদের মাঝে অতি প্রয়োজনীয় ঔষধ  (প্যারাসিটামল ২০টি, অমিপ্রাজল ১০টি, ঠান্ডা ও ব্যাথ্যার ঔষধ ২পাতা )  বিতরন করেন ডাক্তার হাবিবুর রহমান। শুধু তাই নয় করোনা পরিস্থিতি রোগীদের স্বাভাবিক সেবা দেয়ার জন্য কেরানীগঞ্জে করোনা রোগী শনাক্তের পর থেকেই আটিবাজার সেন্ট্রাল হাসপাতালে ২৪ ঘন্টা অবস্থান করে রোগীদের স্বাভাবিক সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।  এছাড়াও কেরানীগঞ্জ ডক্টরস এসোশিয়শনের মাধ্যমে প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বেলা ২ টা পর্যন্ত ফোন কলের মাধ্যমে রোগীদের ফ্রীতে সেবা দিচ্ছেন তিনি।  কেরানীগঞ্জ ডক্টর এসোশিয়সনের  সকল ডাক্তারদের এন৯৫ মাস্ক বিতরন করেন তিনি।

এ বিষয়ে ডা: হাবিবুর রহমানের সাথে কথা হলে তিনি জানান, সবার যেমন ক্ষুধাও লাগে তেমন টুকটাক হালকা অসুখ ও হয়, দেশের এই পরিস্থিতি আমি সবাইকেই টুকটাক সমস্যার জন্য হাসপাতালে যাওয়াটা নিরুৎসাহিত করি। আমার পক্ষে সম্ভব হলে আমি সকল দরিদ্রদের বাসায় গিয়ে সেবা দিয়ে আসতাম। কিন্তু আমার একার পক্ষে তা সম্ভব না। তাই বিভিন্ন সামাজিক গ্রুপ গুলের মাধ্যমে অসহায়দের মাঝে প্রেসক্রিপশনসহ ঔষধ বিতরনের চেষ্টা করছি। যাতে সামান্য অসুখে হাসপাতালে যেতে না হয়। বিতরন কার্যক্রম চলমান থাকবে। খুশির বিষয় হচ্ছে কেরানীগঞ্জের অনেক ডাক্টার এগিয়ে এসেছে, আমার সাথে যোগাযোগ করেছে, তারাও অসহায়দের পাশে দাড়াতে চায়।

উল্লেখ্য ডা: হাবিব গত ২০১৯ সালের জানুয়ারী মাস থেকে প্রতি শুক্রবারে কেরানীগঞ্জ সহ আশে পাশের এলাকাগুলোতে তার বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত আলাদীন পেইন সেন্টারের মাধ্যমে অসহায়দের জন্য  ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প পরিচালনা করে আসছেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

আপনি বেঁচে থাকলে অনেক কম টাকায় গরিব সেবা পাবে

গত ২৫ মে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন গনস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরী। শুরুর দিকে তার …

error: Content is protected !!