রণবীরকে চড় মেরেছিলেন সালমান, তারপর যা ঘটেছিল দুই পরিবারে

ঋষি কাপুর এমন একজন মানুষ, যিনি সব সময় মনের কথা টুইটারে শেয়ার করে থাকেন। আর তার ঠিক উল্টো স্বভাবের হলেন সালমান খান। সালমানের কাছে একবার যিনি খারাপ হয়ে যান, সারা জীবন সালমান তার প্রতি সমান মনোভাব নিয়ে চলেন। অপছন্দের মানুষেরা সালমানের কাছে জড়বস্তুর মতো। তিনি যেন দেখেও দেখেন না তাদের। ঠিক এ রকমই সম্পর্ক সালমান খান আর ঋষি কাপুরের মধ্যে।

সালমান খান আর ঋষি কাপুর বহু বছর ধরেই একে অপরের বিরুদ্ধে লেগেছিলেন। সময়ে সময়ে তাদের বিভিন্ন সাক্ষাৎকার বা মন্তব্য থেকে এই বিষয়টা আরও পরিষ্কার হয়েছে। কবে এবং কী ভাবে তাদের দু’জনের মধ্যে সম্পর্কের এমন অবনতি হল?

সালমানের বাবা সেলিম খানের সমসাময়িক অভিনেতা হলেন ঋষি কাপুর। শুরু থেকেই কিন্তু সালমানের সঙ্গে ঋষি কাপুরের এমন সম্পর্ক ছিল না। দু’জনে একসঙ্গে ‘ইয়ে হ্যায় জলবা’ ছবিতে অভিনয়ও করেছেন। এর কিছু বছর পর এমন একটা ঘটনা ঘটে যা কাপুর এবং খান পরিবারের মধ্যে সমস্যার সৃষ্টি করে।

সালমান খান তখন ক্যারিয়ারে সাফল্য অর্জন করছেন। নামও হয়েছে তার। একবার বন্ধু সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে মুম্বাইয়ে একটি ক্লাবে পার্টি করছিলেন সালমান। সেই পার্টিতে বন্ধুদের সঙ্গে হাজির ছিলেন রণবীর কাপুরও। রণবীর তখনো বলিউডে পা দেননি। কোনো একটা বিষয় নিয়ে সালমান আর রণবীরের মধ্যে তুমুল ঝগড়া শুরু হয়ে যায়। কথায় কথায় রণবীরকে চড় মারেন সালমান খান। তখন সঞ্জয় দত্ত দু’জনের মাঝে দাঁড়িয়ে তাদের শান্ত করান। পার্টি ছেড়ে চলে যান রণবীর।

এই ঘটনা যখন সালমানের বাবা সেলিম খানের কানে যায়, তিনি সালমানকে কাপুর পরিবারে গিয়ে ক্ষমা চাইতে বলেন। কিন্তু সালমান ছিলেন নাছোড়বান্দা। বাধ্য হয়ে সেলিম খানই ছেলের তরফে রণবীর এবং ঋষি কাপুরের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেন।

বিষয়টা এখানেই মিটে যেতে পারত। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। পরবর্তীকালে রণবীরের সঙ্গে সালমানের সম্পর্ক অনেক স্বাভাবিক হলেও ঋষি কাপুরের মনে সালমানের প্রতি এবং সালমানের মনে ঋষি কাপুরের প্রতি ক্ষোভ ক্রমে গভীর হয়েছে।

কাপুর পরিবার থেকে সালমান আরও চোট পেয়েছিলেন যখন তার গার্লফ্রেন্ড ক্যাটরিনা কাইফ তাকে ছেড়ে রণবীরের সঙ্গে প্রেম করতে শুরু করেন। সালমান সাধারণত জোর করে কোনো সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার ঘোর বিরোধী। কিন্তু ঋষি কাপুর তার বাবার সমসাময়িক অভিনেতা হওয়ায় রণবীরের সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখেন তিনি।

এর পর ২০১১ সালের ‘টেল মি ও খুদা’-তে ঋষি কাপুরের সঙ্গে অভিনয় করতে দেখা যায় সালমান খানকে। শোনা যায়, ঋষি কাপুরের সঙ্গে অভিনয়ের কোনো ইচ্ছা সালমানের ছিল না। কিন্তু ধর্মেন্দ্র এবং হেমা মালিনীর অনুরোধে রাজি হন সালমান।

২০১৫ সালে ‘হিট অ্যান্ড রান’ মামলার শুনানির সময় পুরো বলি ইন্ডাস্ট্রি সালমানের পাশে ছিল। টুইট করে সালমানের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছিলেন ঋষি কাপুরও। কিন্তু তার পরই তার বয়ান পাল্টে যায়।

সালমানের পক্ষে প্রশ্ন করেন কয়েকজন তারকা। তারা এই ঘটনার দায়ভার সবটাই সরকারের উপর চাপান। তাদের কারও মন্তব্য ছিল, ফুটপাথ শোওয়ার জায়গা নয়, তো কারও মন্তব্য ছিল, সরকার গরিবদের জন্য থাকার ব্যবস্থা করলে এই দুর্ঘটনা ঘটত না।

এদের প্রত্যুত্তরে ঋষি কাপুর তাদের সালমানের ‘চামচা’ বলে মন্তব্য করে বসেন। আর সালমানের প্রতি ব্যক্তিগত আক্রোশ দেখিয়ে ফেলেন। এর পর অবশ্য সালমানের ভক্তেরা ঋষি কাপুরের সমালোচনা শুরু করেন। সালমান তখনো চুপ করে ছিলেন।

জানুয়ারি ২০১৭ সালে ঋষি কাপুরের আত্মজীবনী ‘খুল্লাম খুল্লা’ প্রকাশ পায়। তাতে ঋষি সেলিম খানের বিরুদ্ধে তার ক্যারিয়ার শেষ করে দেওয়ার হুমকির কথা উল্লেখ করেন। তখনো পর্যন্ত ঋষি কাপুরের বিরুদ্ধে একটাও মন্তব্য করেননি সালমান খান।

কিন্তু মুম্বাইয়ের হোটেলে সোনম কাপুরের রিসেপশনের পার্টিতে সমস্ত সহ্যের সীমা পার করে ফেলেছিলেন সালমান খান। শোনা যায়, এই পার্টিতে সালমান খানের ভাইয়ের স্ত্রী সীমা খানের সঙ্গে নাকি ভীষণ দুর্ব্যবহার করেন ঋষি কাপুর। সালমানের নামে অনেক খারাপ মন্তব্যও করেন তিনি।

সীমা খান এই ব্যবহারে অত্যন্ত বিরক্ত হন। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে ঋষি কাপুরকে পার্টি থেকে সরিয়ে নিয়ে যান তার স্ত্রী নীতু কাপুর। এর পর সালমান খানের কানে কথা পৌঁছায়। তাদের সম্পর্কের মাঝে তার পরিবারকে টেনে আনায় বিরক্ত হয়েছিলেন সালমান।

এত দিন সালমান খান ঋষি কাপুরের বিরুদ্ধে একটাও মন্তব্য করেননি। তাকে পুরোপুরি উপেক্ষা করে চলছিলেন। কিন্তু এর পর এক সাক্ষাৎকারে সালমানের কাছে জানতে চাওয়া হয়, অমিতাভ, অনিল এবং ঋষি কাপুরের মধ্যে ইন্ডাস্ট্রিতে দ্বিতীয় ইনিংসে কে দারুণ ব্যাট করছেন।

প্রশ্নের উত্তরে অমিতাভ এবং অনিলের নামে ভূয়সী প্রশংসা করেন সালমান। ঋষি কাপুরের নামটাই পুরোপুরি এড়িয়ে যান। সরাসরি নাম না নিয়েই তার মনে ঋষি কাপুরের স্থান কী, সে দিন তিনি বুঝিয়ে দিয়েছিলেন বলেই মনে করেছিল বলিউড।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

শ্রাবন্তীকে কুপ্রস্তাবের অভিযোগে খুলনার যুবক গ্রেপ্তার

মোঃ আশরাফুল ইসলাম, খুলনা সদর প্রতিনিধিঃ ভারতীয় চিত্রনায়িকা শ্রাবন্তী চ্যাটার্জির ব্যক্তিগত ফোনে কুপ্রস্তাবসহ নানা ধরনের …

error: Content is protected !!