কেরানীগঞ্জ মডেল টাউন লকডাউন !

ঢাকার কেরানীগঞ্জে প্রথম করোনা আক্রান্ত ব্যাক্তি শনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্ত ব্যাক্তির বয়স  (৬৮) তিনি কেরানীগঞ্জ জিনজিরা ইউনিয়নের মডেল টাউন এলাকায় ১ নাম্বার ওয়ার্ডের ৬৮ নং বাড়ির ৯ তলায় নিজ ফ্লাটে বসবাস করেন। এ জন্য লক ডাউন করে দেয়া হয়েছে পুরো মডেল টাউন এলাকা।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মীর মোবারক হোসেন জানান,আক্রান্ত ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে গত ২৯ মার্চ জিনজিরা ডায়গস্টিক সেন্টারে জান। এর তিনদিন পরে ১ এপ্রিল কেরানীগঞ্জের ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য জান। পরে বেশি অসুস্থ হলে সেখান থেকে বারডেম হাসপাতালে ভর্তি হয়। সেখানে তার করোনা উপসর্গ দেখা দিলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^ বিদ্যালয়ে তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতেই তার করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। বর্তমানে চিকিৎসার জন্য তাকে আমরা কুয়েত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছি। এবং তার পরিবারকে হোম কোয়ারেইন্টাইনে রেখেছি।] আক্রান্ত ব্যাক্তি মডেল টাউন এলাকায় ই ইলেকট্রনিক আইটেমের ব্যবসা করতেন। তার তিন ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে। বড়ো দুই ছেলে একজন দক্ষিন কোরিয়া ও অন্যজন সৌদিতে থাকেন। ছোট ছেলে ঢাকার মিরপুরে বসবাস করেন। তবে গত ১ মাসে তার পরিবারের কেউ বিদেশ ফেরত নেই।
এদিকে তার আক্রান্তের ঘটনায় পুরো কেরানীগঞ্জ মডেল টাউন এলাকা লক ডাউন করে দিয়েছে প্রশাসন । কেরানীগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কামরুল হাসান সোহেল জানান, গত শুক্রবার সে এলাকার মসজিদে নামাজ পরেছে সবার সাথে। তাই সমগ্র এলাকাবাসীর নিরাপত্তার কথা ভেবে আপাতত আজকে থেকে ১৪ দিনের জন্য পুরো মডেল টাউন এলাকা লক ডাউন করে দেয়া হয়েছে।

এদিকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়, আক্রান্ত ব্যাক্তি যেহুতু কেরানীগঞ্জের দুটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন তাই জিনজিরা ডায়াগনেস্টিক সেন্টার ১৩/০৪/২০২০ খ্রি: এবং ইবনেসিনা ডায়াগনেস্টিক সেন্টার, কেরাণীগঞ্জ শাখা ১৫/০৪/২০২০ খ্রি: পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। ঐ ২টি প্রতিষ্ঠানের সকল পর্যায়ের স্টাফগণ আগামী ১৪ দিন হোম- কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

মেসভাড়া নিয়ে চরম ভোগান্তিতে জবি শিক্ষার্থীরা

করোনার ভয়াবহ প্রকোপে অসহায়ত্বের শিকার হলবিহীন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।ক্যাম্পাস বন্ধ থাকলেও পিছু ছাড়েনি মেসভাড়া সংক্রান্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!