এবার কেরানীগঞ্জে বাড়ি ভাড়া মওকুফ করলেন এক বাড়িওয়ালা

করোনাভাইরাসের কারনে সারা দেশের সবকিছু বন্ধ থাকায় দারুন বিপাকে পরেছে মধ্যবিত্ত ও নিন্ম আয়ের মানুষেরা। মাস শেষে সংসারের খরচ-সহ বাড়ি ভাড়া দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের। এর পরিপেক্ষিতে দেশের অনেক জায়গায় বাড়ি ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছে বেশ কয়েকজন উদার মনের বাড়ির মালিক। এবার কেরানীগঞ্জে এমন মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো রোকসানা বেগম নামে এক বাড়ির মালিক।

করোনার কারণে অর্থনৈতিক মন্দা, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বৃদ্ধির পরিস্থিতিতে মানবিক দিক বিবেচনা করে চলতি মাসে ভাড়াটিয়াদের থেকে বাড়ি ভাড়া নেবেন না রোকসানা বেগম। কেরানীগঞ্জ আগানগর ইউনিয়ন ৭ ওয়ার্ড ২৯ নং এই বাড়িতে ১৯টি পরিবার ভাড়া থাকেন। যানা যায় প্রতি মাসে মাসিক ৫৭ হাজার টাকা বাড়ি ভাড়া পান তিনি। বাড়ি ভাড়ার সাথে সাথে বিদ্যুৎ বিল ও সার্ভিস চার্জ ও মওকুফ করে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

রোকসানা বেগমের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, দেশে বর্তমানে খারাপ সময় যাচ্ছে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে মানুষ ঘর থেকেই বের হতে পারছেন না। অনেকে না খেয়েই দিন কাটাচ্ছে তার ওপর আবার বাড়ি ভাড়া সহ অন্যান্য খরচের চাপ তো আছেই। তবে যতো সংকটই আসুক, তা মোকাবেলায় মানুষের জন্য তো মানুষকেই এগিয়ে আসতে হবে। তাই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমার ভাড়াটিয়া কারো কাছ থেকে আমি মার্চ মাসের ভাড়া নেবো না।
তার দেখাদেখি কেরানীগঞ্জের অন্যান্যা বাড়িওয়ালাও এই দুর্যোগের সময় সাধ্যমত ভাড়াটিয়াদের পাশে দাঁড়াবেন বলে রোকসানা বেগম আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত দেবনাথ বলেন, রোকসানা বেগম দেশের এই দুযোর্গকালীন সময়ে যে মহৎ উদ্যোগ নিয়েছেন তার জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানাই এবং তার পাশাপাশি অন্যরাও এ ধরনের উদ্যোগ নিবেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।#

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

বাবা মানে বটবৃক্ষের ছায়া,আজ বাবা দিবস!

জহিরুল ইসলাম মিলন,টাঙ্গাইল (ধনবাড়ী) প্রতিনিধিঃ- বাবা মানে বটবৃক্ষের ছায়া। বাবা মানে নির্ভরতা। সন্তানের প্রতি পিতা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!