ফেসবুক এ বন্ধুত্ব অত:পর সর্বনাশ

ফেসবুক এ বন্ধুত্ব অত:পর মহিলার সর্বনাশ

নিজের নাম ও ছবি গোপন করে প্রায় ৬ ৭ মাস আগে নিজের চেয়ে বয়সে অনেক বড়ো নারীর সাথে ফেসবুক এ বন্ধুত্ব হয় এক তরুনের। প্রায় মাস দুয়েক পর ঐ নারীর ব্যাক্তিগত ছবি সংগ্রহ করে তা অনলাইনে ছেড়ে দেয় তরুনটি। ভয় দেখিয়ে প্রায় সাড়ে ৩লাখ টাকা ও আদায় করে ঐ নারীর কাছ থেকে। আরো টাকা চাইলে মামলা করেন ঐ নারী। গেল বুধবার ইমরান নামের ঐ তরুনকে আটক করে পুলিশ।

চট্রগ্রাম চান্দগাও থানায় তথ্যপ্রযুক্তি ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা করা হয়। বগুড়া সদর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতি বার আদালতের মাধ্যমে তাকে চট্রগ্রাম কারাগারে পাঠানো হয়।

ছেলেটি চট্রগ্রামের একটি কলেজ থেকে এইচ.এস.সি পাস করে। কিন্তু সে থাকে বগুড়ায়। আর তার বাড়ি গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানার নাগের ভিটা গ্রামে। ইমরানের বাবার নাম তাজ উদ্দিন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও চট্টগ্রাম নগর গোয়েন্দা  পুলিশের পরিদর্শক জনাব ইলিয়াছ খান জানান, ইমরান কাব্য শাহরিয়ার নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে মামলার বাদীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তুলেন। দুই জনের মধ্যে সাক্ষাত না হলেও ঐ নারী তার ভিডিও এবং একান্ত ছবি দেন ইমরান কে। সম্পর্ক গভীর হলে ব্যবসা করার জন্য ইমরান ঐ নারীর কাছ থেকে ২ লাখ টাকা হাওলাদ নেন। পরে ধারের টাকা ফিরত চাইলে ইমরান ভিডিও আর ছবি অনলাইনে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেন। পরে ইমরার আরো দেড় লাখ টাকা আদায় করে নেন। গেল জুন মাসে আরো টাকা দাবী করে ইমরান। ইতিমধ্যে ঐ নারী জানতে পারে তার ভিডিও ইউটিউবে ছাড়ার কথা। ওই নারী তারপর চান্দগাও থানায় মামলা করেন।

গতকাল দুপুরে নগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের ইমরান  বলেন, ভুল করেছেন তিনি। ইউটিউবে ভিডিওটি ছাড়া তার উচিত হয় নি । এই ভুলের জন্য তিনি অনুতপ্ত।

তদন্ত কর্মকর্তা বলেন পড়াশোনায় ভালো হওয়া স্বত্তেও অভিভাবকের অসচেতননা ও তথ্যপ্রযুক্তির অপব্যবহারের কারনে ইমরান এই অপরাধে জড়িয়ে পড়েছে। অভিভাবকের সচেতনতার পাশাপাশি ফেসবুকে বন্ধু নির্বাচনে সতর্ক হবার পরামর্শ দেন তদন্ত কর্মকর্তা।

৪ ভাই দুই বোনের মধ্যে ইমরান চতুর্থ। বড় ভাই ঢাকার একটি নামকরা হোটেলে বাবুর্চি। মেঝ ভাই চট্রগ্রামে সিপিজেডে একটি কারখানায় কাজ করেন। লেখাপড়ায় সে বরাবরই ভালো ছিলো। এস.এস.সি ও এইচ এস সি তে জিপি এ ৫ ছিলো।

গ্রেফতার হবার পর ইমরান পুলিশদের বার বার বলছিলো আমি ভুল করেছি আমাকে একটা সুযোগ দিন।

আরো পরুন:  মৌসুমীকে বয়স্ক বলায় চটলেন ওমর সানী

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

দাদার দাদাগিরিতে গৃহহীন তিন ভাই

এম.এম.জাহিদ হাসান হৃদয় (আনোয়ারা, চট্টগ্রাম): নূর মুহাম্মদ, ইয়ার মুহাম্মদ, মৃত আবু তাহের,আব্দুর রহিম। সম্পর্কে তারা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!