পুরান ঢাকায়

জবির ৯৫ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ পুরষ্কারের জন্য মনোনীত

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ৯৫ শিক্ষার্থী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উচ্চশিক্ষায় গবেষণা সহায়তা প্রকল্প ‘জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপে’ অনুদানের জন্য মনোনীত হয়েছেন।

সম্প্রতি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব রবিউল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানা যায়। মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তি সূত্রে, ভৌতবিজ্ঞান, জীব ও চিকিৎসাবিজ্ঞান এবং খাদ্য ও কৃষিবিজ্ঞান এই তিন ক্যাটাগরিতে ফেলোশিপ পাচ্ছেন দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ৩ হাজার ২০০ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী।

যার মধ্যে ৪৮ জন এমফিল ও পিএইচডি গবেষকের ফেলোশিপ নবায়ন সম্পন্ন হয়েছে। এবছর জবির বিভিন্ন বিভাগের মোট ৯৫ জন শিক্ষার্থী এ ফেলোশিপ পাচ্ছেন। এদের মধ্যে ভৌতবিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ৪৮ জন এবং জীব ও চিকিৎসা বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে ৪৭ জন শিক্ষার্থী। ভৌতবিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে এই ফেলোশিপ পাচ্ছেন রসায়ন বিভাগের ১৭ জন শিক্ষার্থী। তারা হলেন- শিফা সরকার, গৌরাংজ্ঞ রায় ,খাদিজা আক্তার , নাসরিন আক্তার নদী , শিরিন আক্তার , উম্মে হাবিবা ইমা, লিলুফার ইয়াসমিন , লাকী আক্তার , মো:মেহেদী হাসান, শাহজালাল রেদোয়ান , শাহবাজ খাতুন, শাহ আলম, নাবিলা আক্তার , ফাহমিদা আক্তার , আতিকুর রহমান, সাকিব সাদাত টিটু, ইমতিয়াজ উদ্দীন ।

ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ১২ জন ।তারা হলেন – জেসমিন জুই, উর্মি জাহান ,মাসুম বিল্লাহ, ফাতিমা কুম,উম্মে হাবিবা,আশফিয়া ইসলাম,উম্মে সালেহ শাকিরা, অনিক শুভ্র দে,আমেনা খাতুন পিংকি,মিনারুল ইসলাম ,সৌকত চন্দ্র ,রুকসানা শারমিন ।

গনিত বিভাগের ১২ জন ।তারা হলেন – লিটন মিয়া,সুরাইয়া ইয়াসমিন,ইলিয়াস মিয়া,উম্মে সালমা,তমা রানী ,শ্রীদম চন্দ্র,শিশির রঞ্জন ,মাহবুব আলম,শ্রাবন তাহুরা,মনোয়ার হোসেন ।

পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ৭ জন।তারা হলেন – ফাতেমা তুজ জোহরা, রাশেদা খাতুন, জাহিদ হাসান,সিনথিয়া, ইসমাথ জাহান জেনি, রিয়াদ আরেফিন, রেহানা আক্তার ।

জীব ও চিকিৎসা বিজ্ঞান ক্যাটাগরিতে এই ফেলোশিপ পাচ্ছেন উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের ১৬ জন, প্রাণিবিজ্ঞান বিভাগের ১৯ জন , অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের ১০ জন , মনোবিজ্ঞান এবং ফার্মেসি বিভাগের ১ জন করে ।

ফেলোশিপ পাওয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে এমএস শিক্ষার্থী প্রতি ৫৪ হাজার টাকা, এমফিল গবেষক (১ম বর্ষ ৬৮ হাজার ৪০০ টাকা, ২য় বর্ষ ৯৯০০০ টাকা) এবং পিএইচডি গবেষক তিন লাখ টাকা আর্থিক সহায়তা পাবেন । উল্লেখ্য, ১৯৭৭-১৯৭৮ অর্থবছর থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়/গবেষণা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত/গবেষণারত এমএস, এমফিল, পিএইচডি পর্যায়ের শিক্ষার্থী ও গবেষকদের এই অনুদান প্রদান করা হয়।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,নবীনদের বরণ করলো রাজশাহী কলেজ রিপোটার্স ইউনিটি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

দৌলতদিয়ায় যৌনকর্মীদের পাশে জেসিআই ঢাকা ইয়াং

মোঃ মাসুদ রাজবাড়ী জেলার দৌলতদিয়ার যৌনপল্লীতে যৌন কর্মীদের মাঝে প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য এবং স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!