এক ছাত্রীকে

রাতভর পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ! ইউপি সদস্যের মধ্যস্থায় বিয়ে

হৃদয় এস সরকার, নরসিংদী প্রতিনিধিঃ নরসিংদী পলাশ উপজেলায় পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে রাতভর ঘরে আটক রেখে ধর্ষণ করে মো.সম্রাট (১৬) নামে এক কিশোর পরে জিনারদী ইউপি সদস্য মো. মনিরুজ্জামান আজাদের নেতৃত্বে গ্রাম্য সালিশে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ের ব্যবস্থা করে বলে অভিযোগ উঠেছে।

জালিয়াতি করে নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়েটি গত ১৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হলেও সংশ্লিষ্ট আইনজীবী তাতে ধর্ষণের ঘটনার আগের দিন অর্থাৎ ১৩ ফেব্রুয়ারির তারিখ দিয়ে নোটারী পাবলিক বিয়ে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ১৪ ফেব্রুয়ারী রাতে পরিবারের সঙ্গে বাড়ির পাশে এক অনুষ্ঠানে যায় ঐ স্কুল ছাত্রী। অনুষ্ঠানের ফাঁকে সে একটি দোকানে গেলে হঠাৎ মো. সম্রাট মিয়া এবং তার দুই বন্ধু নয়ন ও আকরামের সাহায্যে ছাত্রীকে সম্রাট তার নিজ বাড়িতে তুলে নিয়ে গিয়ে রাতভর পাশবিক নির্যাতন চালায়।

ছাত্রীর পরিবারের লোকজন সারারাত খোঁজাখুঁজি করেও তাদের মেয়ের কোন সন্ধান পায়নি। পরদিন শনিবার সকালে সম্রাটের বাড়ি থেকে ছাত্রীটিকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

পরে ভুক্তভোগী ছাত্রী তার পরিবারকে ধর্ষণের বিষয়টি জানায়। এঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রীর পরিবার আইনের আশ্রয় নিতে চাইলে জিনারদী ইউপি সদস্য মো. মনিরুজ্জামান আজাদের নেতৃত্বে মাঝেরচর এলাকার মদন মিয়া ও পলাশেরচর এলাকার আওলাদের মাধ্যমে গ্রাম্য সালিশে আপোষ-মীমাংসার কথা বলে গত রবিবার ভুক্তভোগী ছাত্রীকে সংশ্লিষ্ট আইনজীবী এ্যাডভোকেট শেখ মোমেন জালিয়াতির করে ছাত্রীর স্বাক্ষর নিয়ে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে দেয়।

জোরকরে বিয়ে দেয়া ও ঐ ছাত্রী প্রকৃত বয়স গোঁপন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা জানায়, আমরা গরীব ও অসহায়। সম্রাটের পরিবার বিত্তশালী। তাই টাকার জোরে মেম্বারের মাধ্যমে আমাদের সম্পূর্ণ অমতে উকিলের দিয়ে নোটারী পাবলিক করেছে।

আমার মেয়ের বয়স প্রকৃতপক্ষে ১২ বছর। কিন্তু নোটারী পাবলিকে আমার মেয়ের বয়স গোপন করে বর্তমান বয়স ১৮ দেখানো হয়েছে। আমি এই ঘটনার জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগি স্কুল ছাত্রীর পরিবার নরসিংদী জেলা প্রশাসকের কাছে আইনগত সহায়তা চেয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পত্র জমা দিয়েছে।

এঘটনায় পলাশ থানার ওসি (তদন্ত) হুমায়ূন কবির জানান, মঙ্গলবার বিকালে ভুক্তভোগি ঔ ছাত্রীর মা বাদী হয়ে সম্রাট ও তার দুই সহযোগির বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন অভিযুক্তদের আটকে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,ষড়যন্ত্রকারীরা আগামী নির্বাচন বানচালের জন্য ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে : খাদ্যমন্ত্রী

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

গোয়ালন্দে দেশী মদসহ ৩ জন গ্রেফতার

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থেকে শনিবার বিকেলে বিপুল পরিমান দেশী মদসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮। …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!