Breaking News
Home / লাইফস্টাইল / রাজশাহীতে বসন্ত-ভালোবাসায় সরগরম ফুলের বাজার
পবিত্রতার প্রতীক

রাজশাহীতে বসন্ত-ভালোবাসায় সরগরম ফুলের বাজার

সজিবুল ইসলাম হৃদয়ঃ ফুল শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও পবিত্রতার প্রতীক এমনকি শোকের সঙ্গেও জড়িয়ে আছে ফুল। তাই যে কোনো উৎসবে ফুলের দোকানগুলোতে দেখা যায় উপচে পড়া ভিড়।

সারাদেশের ন্যায় রাজশাহীতেও বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে সরগরম হয়ে উঠেছে ফুলের বাজার। বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকালে রাজশাহীর সাহেব বাজার, নিউ মার্কেটে সরেজমিনে দেখা যায়, বিভিন্ন ফুলের দোকানে ক্রেতাদের আগমনে জমে উঠেছে বেচাকেনা। এবার বসন্ত ও ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে বছরের অন্য সময়ের তুলনায় সব ধরনের ফুলের দাম কয়েকগুণ বেশি।

দাম বেশি হলেও বসন্ত বরণের উৎসব এবং ভালোবাসার কাছে যে বাড়তি দাম কোনো বিষয়ই নয়, তারই প্রমাণ মেলে এ ভিড়ে। বসন্ত বরণ ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে বাসন্তি, হলুদ গাঁদা এবং ঝারবালা ফুলের বিক্রি বেশি হচ্ছে।

এর পাশাপাশি গ্যারোডিলাক্স ফুল দিয়ে তৈরী করা মাথার ক্রাউন বিক্রি হয়েছে দেখার মতো। তবে এসব ক্রেতার সিংহভাগই তরুণ-তরুণী।

ফুল বিক্রেতা শফিকুল ইসলাম জানান, বছরের অন্যান্য মাসের তুলনায় ফেব্রুয়ারি মাসে ফুলের চাহিদা থাকে অনেক বেশি। বিশেষ করে গোলাপ ও রজনীগন্ধা ফুলের। বসন্ত ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবসকে ঘিরে গত কয়েকদিন থেকে আমাদের ব্যস্ততা বেড়েছে কয়েকগুণ।

নতুন ফুল আনা, সেগুলো দিয়ে মালা, মাথার ক্রাউন তৈরি করাসহ বিভিন্ন কাজে কাটছে দিনের ব্যস্ত সময়। অার বিক্রিও ভালো হচ্ছে। ফুল কিনতে আসা রাজশাহী কলেজের এক শিক্ষার্থী জানান, অাগামীকাল বিশ্ব ভালোবাসা দিবস।

এ ধরনের দিবসগুলোতে যেন ফুলের বিকল্প কিছুই নেই। আর তাই প্রিয়জনকে উপহার দিতে দোকানে এসেছি ফুল কিনতে। তবে অনন্য দিনের থেকে অাজ ফুলের দাম অনেক বেশি বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, রাজশাহীতে ক্যাপ গোলাপ প্রতিটি ৫০-৭০ টাকায়, লিংকন গোলাপ, ম্যারেন্ডা গোলাপ ২৫-৪০ টাকা, গার্ডিওলাস ৩০-৫০টাকা। এছাড়া মাথার ক্রাউন ১০০-২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,রাজবাড়ীতে নকল করার অপরাধে ৫ পরীক্ষার্থী বহিস্কার

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

About নিউজ ঢাকা ২৪

Check Also

করোনার আতঙ্ক থেকে বাঁচব কীভাবে?

নতুন করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ বর্তমানে সারা বিশ্বে একটি আতঙ্কের নাম। প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ...

করোনা রোগীদের জন্য কয়েকটি পরামর্শ

করোনাভাইরাস দিনে দিনে বিশ্বে ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। এ রোগের কারণে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে এগারো ...