পেঁয়াজের দাম

নরসিংদী বড় বাজারে পেঁয়াজের দাম শুনে মাথায় হাত!

হৃদয় এস সরকারঃ নরসিংদী শহরের সবচে বড় সবজির বাজার বড় বাজার সেখানে কিছুদিন যাবৎ পেঁয়াজের দাম ‘আগুনে’ পরিনত হয়েছে।পুরো দেশে মত এখানেও নিয়ন্ত্রণহীন ভাবে বেড়েই চলেছে পিঁয়াজের মূ্ল্য।বাজারে প্রতিদিন উঠানামা করছে পেঁয়াজের দাম।

কখনোও বিক্রি হচ্ছে ২৩০ থেকে ২৪০ কখনোও বা এক লাফে ২৬০ এতে চরম ভূগান্তির শিকার হচ্ছেন বাজারে আসা ক্রেতারা কিছুদিন আগেও এ বাজারে ১২০ থেকে ১৩০ টাকার মধ্যে নিত্য প্রয়োজনিয় পিঁয়াজ বিক্রি হয়েছে কিন্তু এখন তা অজানা কারণে সাধারণ ক্রেতাদের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে চলে যাচ্ছে।

আব্দুল মালেক নামে এক ব্যক্তি একটি মিলে ১২ হাজার টাকা বেতনে চাকুরি করেন শহরের দুই সন্তান ও স্ত্রী নিয়ে একটি বাড়া বাসায় থাকেন।

মাস শেষে বেতনের টাকা দিয়ে ছেলে-মেয়ের স্কুল খরচ, টিউশন ফ্রি , বাসা ভাড়া, বিদ্যুৎ বিল, গ্যাস বিল, মাসিক নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র, ছোট-বড় নানান সমস্যা ইত্যাদির খরচ বহন করেন।

আব্দুল মালেক নিউজ ঢাকা ২৪ কে জানান, আমি আট-দশজন নিম্নমধ্যবিত্ত মানুষদের একজন খুব কষ্টে টেনেটুনে নির্দিষ্ট টাকার ভিতর চলতে হয় পুরো মাস।

কিছু দিন আগে দেশে গ্যাসের দাম বাড়লো এখন পিয়াজের দামও আকাশ ছুঁই  আজ থেকে ১৫ দিন আগে বাজার থেকে যে পিঁয়াজ কিনেছি ১২০ থেকে ১৩০ টাকার ভিতরে এখন তা বৃদ্ধি পেয়ে দাড়িয়েছে ২৩০ থেকে ২৪০ টাকা।

বাংলাদেশের সব কিছুর দাম বাড়লেও আমার মত নিম্নমধ্যবিত্ত মানুষগুলোর মাসিক আয় ত আর বৃদ্ধি পাচ্ছেনা এখন আমরা কি করি! কোথায় যাই! এমন অতিরিক্ত খরচ আর বহন করা সম্ভব হচ্ছেনা।এক কথায় সব মিলিয়ে এখন গরীবের মরণ।

এছাড়া অন্যান ক্রেতারা বলছেন, তরকারিতে নিত্যব্যবহার্য এই পেঁয়াজ নামক উপকরণের দামে নাভিশ্বাস তাদের আগেই উঠেছে। এখন রীতিমতো খাবি খাচ্ছেন তারা।

যদি অল্প সময়ের মধ্যে পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণের মধ্যে না আশে তাহলে জনসাধারণের জন্যে পিঁয়াজ ‘আগুন’ থেকে রুপান্তরিত হয়ে দাবানলে পরিণত হবে।

বিক্রেতারা বলছেন, প্রযার্প্ত সরবরাহ না থাকায় পেঁয়াজের এমন আকাশ ছুঁই দাম। পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের থেকে যে দামে পেঁয়াজ ক্রয় করি তা অল্প মুনাফা বিনিময়ে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করি। ব্যবসায়ীরা মূল্য কমালে আমরাও পেঁয়াজ দাম কমাবো।

এদিকে নরসিংদী জেলা পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদারের নির্দেশে পিঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণ রাখতে পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে পুরো জেলা জুড়ে। (১৭ নভেম্বর) রবিারর জেলা ও উপজেলা সকল থানার অফিসার ইনচার্জ নিজ নিজ থানাধীন বাজার গুলোতে অভিযান পরিচালনা করেন।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষে প্রধানমন্ত্রী ২৪ ঘন্টা কাজ করে যাচ্ছে — নসরুল হামিদ বিপু

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

ফরিদপুরে দুই ভাইয়ের নেতৃত্বে সন্ত্রাস বাহিনী ; ৩ বছরে ৩ খুন !

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার তালমার গ্রামে শিশুসহ তিন জন খুনের কোনো কূলকিনারা আজ পর্যন্ত হয়নি। একই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.