কেরানীগঞ্জে থানা থেকে হত্যা মামলার আসামীর পলায়ন; পাচ পুলিশ ক্লোজ

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা)প্রতিনিধি: গত ১৮ অক্টোবর সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে এম ভি কীর্তনখোলা লঞ্চে তুচ্ছ ঘটনায় বাবুর্চি রুবেলকে (২২) খুন করে ঐ লঞ্চের হোটেলের হোটেলবয় ইয়ামিন (১৮) । খুন করার সাথে সাথে ইয়ামিন ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানায় ইয়ামিনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলার দায়ের করা হয়।

হত্যা মামলায় তদন্তভার পান এস আই আবু সিদ্দিক। মামলার পলাতক আসামী ইয়ামীনকে গত শুক্রবার গ্রেপ্তার করে থানায় এনে পরিদর্শক অপারেশনস কক্ষে জিঞ্জাস করে এস আই সিদ্দিক ও এস আই মিযান।

জিঞ্জাসাবাদ শেষে আসামী ইয়ামিন কে ঐ রুমে রেখেই এস আই সিদ্দিক ও মিযান রুম থেকে বের হয়ে যায়। তখন সুযোগ বুঝে আসামী ইয়ামিন কৌশলে হাতকড়া খুলে কর্তব্যরত ডিউটি অফিসার এস আই জহিরুল ইসলামের সামনে দিয়ে পালিয়ে যায়।

দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শাহ জামান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। এবং এ ঘটনায় কর্তব্য অবহেলার কারনে শনিবার বিকালে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানায় এস আই আবু সিদ্দিক, জহিরুল ইসলাম, ওয়ারলস অপারেটর রফিকুল ইসলাম ও কনেস্টবাল লতিফকে ক্লোজ করে ঢাকা জেলা পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ঢাকা জেলা মিডিয়া সেন্টার চীফ শামীম আহমেদ জানায় থানা হেফাজত থেকে হত্যা মামলার আসামী পলায়নের ঘটনা জেলা ডিএসবির এসপি সাইফুল ইসলামকে প্রধান করে পাচ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদান্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদের রিপোর্ট পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যাবস্থা গৃহন করাহবে।#

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,বশেমুরবিপ্রবির যৌন নিপীড়ক শিক্ষক আক্কাস আলীকে চাকরি থেকে বহিষ্কার

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

কেরানীগঞ্জে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরি; তিনদিনেও ঘটনাস্থলে যায় নি পুলিশ

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ১০৮ নং পারজোয়ার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চুরির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার ১০ জানুয়ারী দিবাগত …

error: Content is protected !!