বাবা-ছেলের মৃত্যু

কেরানীগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় বাবা-ছেলের মৃত্যু, স্ত্রী আহত

এ.এইচ.এম সাগর: ঢাকা জেলার কেরানীগঞ্জে রুহিতপুরে ট্রাকের ধাক্কায় মটরসাইকেল আরোহী আসাদুল হক ইপু (৪০) ও তার শিশু সন্তান সোহান (৬) বাবা-ছেলের মৃত্যু হয়েছে।

এই ঘটনায় মটরসাইকেল থাকা সোহানের মা রেশমা (৩০) আহত হয়েছে। শুক্রবার (৮ নভেম্বর) বেলা ২টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসি আহত অবস্থায় ঘটনা স্থল থেকে তিনজনকেই উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে বিকাল সোয়া ৩টার দিকে কর্তব্য চিকিৎসক বাবা-ছেলেকে মৃত ঘোষনা করেন। রেশমাকে ভর্তি রাখেন।

নিহতের মামা শুশ্বর ওয়াহেদুল ইসলাম জানন, নিহত আসাদুলের গ্রামের বাড়ি ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জ থানার বাগমারা এলাকায়। তার পিতার নাম মৃত রেজাউল করিম। সে তিনছেলে ও স্ত্রীকে নিয়ে রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানার ৩০নং করাতিটোলা সায়দাবাদ এলাকায় ফ্লাট কিনে বসবাস করতেন। তিনি একটি বে-সরকারি কোম্পানিতে চাকুরি করতেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আহত রেশমা জানান, তারা মটরসাইকেল যোগে ঢাকা বাড়ি থেকে স্বামী-স্ত্রী ও শিশু সন্তানসহ শ্বশুর বাড়ী নবাবগঞ্জের বাগমারা এলাকায় যাচ্ছিলেন। তাদের মটরসাইকেলটি কেরানীগঞ্জের রুহিতপুর পোড়াহাটি এলাকায় পোছালে একটি ট্রাক তাদের মটরসাইকেলকে ধাক্কাদেয়, এতে তারা রাস্তায় পরে যায়। এ ঘটনায় তিনি নিজে সামান্য আহত হলেও তার স্বামী ও সন্তান গুরুতর মাথায় আঘাত পায়। আমার ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে প্রথমে একটি স্থানীয় ক্লিনিকে নিয়ে যায়। তাদের আঘাত গুরুতর হওয়ায় ক্লিনিক থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেন। এরপর স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আমি স্বামী ও সন্তানকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবা-ছেলেকে মৃত ঘোষনা করেন এবং আমাকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি রখেন।

ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া জানান, বাবা ও ছেলের মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে এবং আহত রেশমা ভালো আছে।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ জুবায়ের জানান, খবর পেয়ে আমরা সথে সাথে ঘটনাস্থলে যাই। এরপর ঘাতক ট্রাকটি আটক করেছি। চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে। নিহতের পরিবার ও সন্তান নিয়ে মটরসইকেল ঢাকা মেট্রো-হ-৩২-৭২৪৭ যোগে নবাবগঞ্জ এলাকায় তার বাবার বাড়িতে যচ্ছিলেন। রেহিতপুর পোড়াহাটি এলাকায় আসলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। এটা একটা মর্মান্তি ঘটনা। এক সাথে বাবা ছেলে দু’জনই মারা গেছে। আমরা কথা দিচ্ছি যত দ্রæত পারি চালক ও হেলপারকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনবো।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,রাজবাড়ীর বানিবহ এলাকায় জমিজমা নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ-আহত-৮

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

থমকে অাছে হাজারো রূপন্তীর গল্প

হঠাৎ থমকে গেলো পৃথিবী। অজানা এক থাবায়, থমকে গেলো নূরের স্বপ্ন। সে যে স্বপ্ন দেখেছিলো …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!