জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা

অপূর্ব চৌধুরী, জবি প্রতিনিধি: আজ বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের একটি বিক্ষোভ মিছিলে হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। সেই হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন ৫জন ছাত্রদলকর্মী।

সকাল ৯ টার দিকে জবি শাখার ছাত্রদল কর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কাঁঠালতলা এলাকা থেকে খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের দিকে যাওয়াকালীন সময়ে তাদের ওপর হামলা করে জবি শাখার ছাত্রলীগ কর্মীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে থেকে ছাত্রদল কর্মীরা একত্রিত হয়ে খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে দিতে বের হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্তচত্বরে আসার পর পেছন থেকে ছাত্রলীগে কর্মীরা তাদেরকে ধাওয়া করেন। ছাত্রলীগের ধাওয়া খেয়ে পালানোর সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে গিয়ে কয়েকজন ছাত্রদলকর্মী পড়ে যায়। পড়ে যাওয়া ছাত্রদল কর্মীদেরকে বেধড়ক মারধর করেন ছাত্রলীগ কর্মীরা।এ ঘটনায় ছাত্রদলের আব্দুর রশিদসহ পাঁচ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। বাকি আহতরা হলেন- এম এ ফয়েজ, জাহিদুল ইসলাম, জায়েদ হাসান ও সাইফুল হক তাজ।

এদের মধ্যে আব্দুর রশিদ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি ৩য় বর্ষের ছাত্র। হামলার পর আহত অবস্থায় আব্দুর রশিদকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে সোপর্দ করা হয় সেখান থেকে তাকে পুলিশ উদ্ধার করে মিটফোর্ড হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এই হামলার ঘটনায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, আমরা অনতিবিলম্বে এই হামলার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি এবং আগামী ২দিনের মধ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে খালেদা জিয়ার নামফলক পুনঃস্থাপনের দাবি জানাচ্ছি৷ আজ থেকে আমরা ক্যাম্পাসে নিয়মিত অবস্থান করব।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সাদিকুর রহমান জানান, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সহাবস্থানের দাবিতে আমরা শান্তিপূর্ণভাবে মিছিল শুরু করি। কিন্তু আমাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে পেছন থেকে অতর্কিত হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে আমাদের বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হয়েছেন।আমি এইরকম ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি সেই সাথে দ্রুত এই হামলার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের আহবায়ক (সম্মেলন প্রস্তুত কমিটি) আআশরাফুল আলম টিটন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে কোন বুড়ো ও অছাত্রদের ঠাঁই হবে না। দলীয় কার্যক্রমের নামে কেউ পরিবেশ অশান্ত করার চেষ্টা করলে আমরা অবশ্যই তা প্রতিহত করব। যাদের ছাত্রত্ব আছে তারা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আসুক, এতে আমাদের কোন আপত্তি নেই।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন আজ সকালে ছাত্রদল কর্মীরা মিছিল বের করলে সেখানে ছাত্রলীগের হামলায় একজন গুরুতর আহত হয়। তার নিরাপত্তার কথা ভেবে আমরা তাকে প্রক্টর অফিসে নিয়ে আসি এবং পরবর্তীতে পুলিশের সহোযোগিতায় তাকে মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠানো হয়।হামলার ঘটনায় সংশ্লিষ্ট কারো বিচার হবে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে আমরা ব্যাবস্থা নিব।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,ফিফা বর্ষসেরায় এবার কোন ভোট ই পান নি নেইমার

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

১১ দফা দাবিতে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের সংবাদ সম্মেলন

জবি প্রতিনিধি: প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের বিভাগীয় প্রার্থীতা পুনর্বহাল এবং ডিপিএড প্রশিক্ষণ ভাতা দ্রুত প্রাপ্তিসহ ১১ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!