বিজ্ঞান বিভাগের

জবির বিজ্ঞান বিভাগের ভর্তিপরীক্ষা কিছু অনিয়মের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন

অপূর্ব চৌধুরী, জবি প্রতিনিধি: আজ শনিবার (২১ সেপ্টেম্বর) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের বিজ্ঞান বিভাগের (ইউনিট-১) লিখিত ভর্তিপরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।সকালে ও বিকালে ২ টি আলাদা শিফটে এই লিখিত ভর্তিপরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিজ্ঞান বিভাগের (ইউনিট-১) এর ভর্তিপরীক্ষায় কিছু অনিয়ম লক্ষ্য করা গেছে।

প্রথম শিফটের (সকাল) লিখিত ভর্তিপরীক্ষা সকাল ১০টায় শুরু হয়ে শেষ হয়েছে ১১.৩০ মিনিটে। দ্বিতীয় শিফটের (বিকাল) লিখিত ভর্তিপরীক্ষা বিকাল ৩টায় শুরু হয়ে ৪.৩০ মিনিটে শেষ হয়েছে।

প্রথম শিফটে (সকাল) জোড় রোল নম্বরধারী মোট ১১ হাজার ৯১০ জন পরীক্ষার্থী এবং দ্বিতীয় শিফটে বিজোড় রোল নম্বরধারী মোট ১১ হাজার ৮৮৬ জন পরীক্ষার্থী লিখিত ভর্তিপরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন।২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে বিজ্ঞান বিভাগের (ইউনিট-১) লিখিত ভর্তিপরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য প্রাথমিক আবেদনকারীদের মধ্যে থেকে মোট ২৩ হাজার ৭৭৩ জন শিক্ষার্থীকে চূড়ান্তভাবে মনোনীত করা হয়েছিল। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজ্ঞান বিভাগের (ইউনিট-১) মোট আসন সংখ্যা ১১৫৫টি।

আজ শনিবার (২১সেপ্টেম্বর) বিজ্ঞান বিভাগের (ইউনিট-১) এর ভর্তিপরীক্ষা শুরু হবার পর সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় একটি বেঞ্চে একসাথে ৩ জন পরীক্ষার্থী বসানো হয়েছে। তাদের প্রশ্নের সেটও ছিল অভিন্ন।


লিখিত ভর্তিপরীক্ষা শুরু হবার মাত্র ৩ মিনিট পরে আসলেও ২জন পরীক্ষার্থীকে লিখিত ভর্তিপরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়নি আইন বিভাগের শিক্ষকগণ।

কিন্তু অন্যান্য অনেক পরীক্ষা কক্ষে লিখিত ভর্তিপরীক্ষা শুরুর নির্ধারিত সময়ের চেয়ে ১৫/২০ মিনিট দেরি করে আসলেও অনেক পরীক্ষার্থীকে লিখিত ভর্তিপরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া হয়।

কলা ভবনের কয়েকটি পরীক্ষা কক্ষে দায়িত্বরত শিক্ষকদের মধ্যে কয়েকজনকে লিখিত ভর্তিপরীক্ষা চলাকালীন সময়ে কক্ষের বাইরে বের হয়ে একসাথে আড্ডা দিতে দেখা গেছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বাণিজ্য অনুষদের (ইউনিট-৩) এর লিখিত ভর্তিপরীক্ষা চলাকালীন সময়ে পরীক্ষাকক্ষে দায়িত্বরত অবস্থায় রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. অরুণ কুমার গোস্বামীকে সেলফি তুলতে দেখা গেছে। পরীক্ষাকক্ষে দায়িত্বরত অবস্থায় তোলা সেলফি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সেটা নিয়ে তীব্র নিন্দার ঝড় ওঠে।

গত শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মানবিক শাখার (ইউনিট-২) লিখিত ভর্তিপরীক্ষার প্রথম শিফটের (সকাল) ১৮ নং প্রশ্নের সাথে দ্বিতীয় শিফটের (বিকাল) ১৮ নং প্রশ্ন পুরোপুরি মিলে যায়।

যার ফলে দ্বিতীয় শিফটের (বিকাল) ভর্তিপরীক্ষার্থীরা সেই প্রশ্নের উত্তর সম্পর্কে আগেই ধারণা পেয়ে গিয়েছিল। যা সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে প্রশ্ন ফাসের সামিল বলেই মনে হয়েছে।

আজ শনিবার ( ২১ সেপ্টেম্বর) বিজ্ঞান বিভাগের (ইউনিট-১) লিখিত ভর্তিপরীক্ষা চলাকালীন সময়ে বিভিন্ন পরীক্ষা কক্ষ পরিদর্শন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক সেলিম ভূঁইয়া এবং বিভিন্ন অনুষদের ডীন।
Hmmm
উল্লেখ্য, গত শনিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বাণিজ্য অনুষদের লিখিত ভর্তিপরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবার মাধ্যমে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের ভর্তিযুদ্ধ শুরু হয়েছিল যেটা আজ শনিবার (২১সেপ্টেম্বর) বিজ্ঞান বিভাগের (ইউনিট-১) এর লিখিত ভর্তিপরীক্ষার মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয়েছে।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,সোস্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার আরেকটি সফলতা !

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

১১ দফা দাবিতে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের সংবাদ সম্মেলন

জবি প্রতিনিধি: প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের বিভাগীয় প্রার্থীতা পুনর্বহাল এবং ডিপিএড প্রশিক্ষণ ভাতা দ্রুত প্রাপ্তিসহ ১১ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!