পারিবারিক

কেরানীগঞ্জে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর সাথে অভিমান করে স্ত্রীর গলায় ফাঁস

এ.এইচ.এম সাগর: কেরানীগঞ্জ মডেল থানা এলাকায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর সাথে অভিমান করে নিজ ঘরে ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে ফাঁস দিয়ে এক সন্তানের জননীর আত্মহননের খবর পাওয়া গেছে। নিহতের নাম নুরুন নাহান (২৭)। স্বামী রাসেল মিয়া।

ঘটনাটি ঘটেছে  বৃহস্পতিবার বিকেলে নিহত নুরুন নাহারের স্বামীর বাড়ি জিনজিরা ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিফোর্ড হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্বামী রাসেল মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে এসেছে।

নিহতের বড় ভাই ইউসুফ আলী জানান, আমাদের গ্রামের বাড়ি বরিশাল ভোলা জেলার সদর থানার উত্তর ইলিশা পাড়ায়। বাবার নাম মোঃসিদ্দিক ফকির। ছোট ভগ্নিপতি রাসেল এর বাড়ির পাশে আরেক ভগ্নিপতি বসবাস করেন। তার মাধ্যমেই ছয় বছর পূর্বে ছোট বোন নুরুন নাহারের সাথে রাসেলের শরিয়ত মোতাবেক বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ফাহিম নামের সাড়ে তিন বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

বিয়ের পর থেকে রাসেলের সাথে বোন নুরুন নাহারের তেমন একটা মিল ছিল না। রাসেল নেশাগ্রস্ত হওয়ায় প্রায়ই তাদের সাথে ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকতো। তিনি আরো জানান, বুধবার রাতে বোন নুরুন নাহারের সাথে তার স্বামী রাসেলে এর সাথে একটি মোবাইল নিয়ে ঝগড়া হয়। রাতে দু’জন ঝগড়া করে শুয়ে পড়ে ফের (আজ) বৃহস্পতিবার সকালে সে মোবাইল নিয়ে ঝগড়া হয়।

বিকেলে আমরা লোকমুখে বোনের মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে বোনের লাশ দেখতে পাই। আমার বোনের আত্মহত্যার জন্য স্বামী রাসেলই দায়ী। আমার এ আত্মহত্যার সুষ্ঠ বিচার চাই।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার উপপরিদর্শক মোঃ মাহমুদুল হাসান জানান, খবর পেয়ে আমি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের বসত ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরের আড়ার সাথে নিহত নুরুন নাহারের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাই। পরে লাশ ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামিয়ে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গেপাঠাই। নিহতের গায়ে কোন আগাতের চিহ্ন নাই। প্রাথমিক ভাবে যতটুকু জানতে পেরেছি পারিবারিক কলহের জের ধরেই আত্মহত্যা করেছে। এ ব্যাপারে কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় মামলা প্রস্তুতি চলছে।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,আগামী শীতেই বিদ্যুৎ রফতানি করবে সরকার

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

অগ্নি নির্বাপন

কেরানীগঞ্জ গার্মেন্টস পল্লীর অধিকাংশ দোকানেই নেই কোন অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা !

ঢাকার কেরানীগঞ্জের কালিগঞ্জ গার্মেন্টস পল্লী অগ্নিকান্ডের জন্য অত্যন্ত ঝুকিপূর্ন একটি এলাকা। এখানে রয়েছে প্রায় ৮ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!