ঐতিহ্যবাহী

বিপাকে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা, কথা রাখছেনা ঢাবি ভিসি

আবু হানিফ (কবি নজরুল সরকারি কলেজ) শিক্ষার্থী: ১৭ সালে শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী সাত কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করা হয়।

আর এর পর থেকেই সাত কলেজের কার্যক্রমে স্থবির হয়ে যায়।নানা সময় সেশনজট নিরসনসহ বিভিন্ন দাবিতে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধনসহ রাস্তা অবরোধের মতো কর্মসূচি দেয়।২০১৭ সালে এই আন্দোলনে পুলিশের গুলিতে চোখ হারায় তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর।

সর্বশেষ ২৩ শে এপ্রিল সেশনজট নিরসন সহ ৫ দফা দাবিতে নীলক্ষেত মোড় অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা,টানা ২ দিনের আন্দোলনের ফলে ২৪ তারিখ ঢাবির প্রক্টর নীলক্ষেত মোড়ে আসেন শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলতে কিন্তু শিক্ষার্থীরা তার কথায় সন্তুষ্ট না হলে ভিসির সাথে দেখা করে।

ভিসি তখন পরীক্ষা গ্রহণের তিনমাসের ভিতরে ফলাফল প্রকাশ করা হবে এবং চলমান সংকট নিরসনে সাত কলেজের অধ্যক্ষদের নিয়ে কার্যকর ভূমিকা নিবেন বলে আশ্বস্ত করেন।
ফলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন স্থগিত করে।

কিন্তু এসব ছিলো আন্দোলন কে বন্ধ করার কৌশল কেননা এসব আশ্বাস দেয়ার পরও কোনটাই কার্যকর হচ্ছে না।
উল্লেখ্যঃ
ডিগ্রি ২০১৪-২০১৫ সেশনের ২য় বর্ষের পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৮ মাস পেরিয়ে গেলেও প্রকাশ হচ্ছে না ফলাফল, তেমনি ২০১৭-২০১৮ সেশনের অনার্স ১ম বর্ষের পরীক্ষা শেষ হয়েছে ৫ মাসেরও বেশি সময় হয়েছে কিন্তু এখনও ফলাফল পায়নি শিক্ষার্থীরা।আর অনার্স ২০১৩-২০১৪ সেশনটি সবচেয়ে বেশি ভুক্তভোগী তারা ৪র্থ বর্ষের ফাইনাল দিয়েছে ৪ মাস আগে কিন্তু ফলাফল পায়নি এখনও, অনার্স ২০১৪-২০১৫ সেশনের ৩য় বর্ষের সকল ডিপার্টমেন্টের ফলাফলও প্রকাশ করতে পারেনি যদিও পরীক্ষা শেষ হয়েছে নভেম্বর মাসে।
এছাড়া বিভিন্ন সেশন নানান সমস্যায় রয়েছে।

বর্তমানে এমন পরিস্থিতির কারণে শিক্ষার্থীরা নিজেদের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তিত।
যেখানে শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য অধিভুক্তি করা হয়েছে সেখানে সেশনজটের নামে শিক্ষার্থীদের জীবনের মূল্যবান সময় নষ্ট করা হচ্ছে।
এমতাবস্থায় শিক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,মাটি খেকোদের কারনে বেহাল অবস্থা কলাতিয়ার রাস্তাঘাট ও ফুটওভার ব্রীজের

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

তরুণ কলাম লেখক ফোরামের দ্বিতীয় বর্ষসেরা লেখক জবির ইমরান

জবি প্রতিনিধি: বাংলাদেশ তরুণ কলাম লেখক ফোরামের ২০২০-২১ বর্ষের সেরা লেখক হিসেবে দ্বিতীয় স্থান অধিকার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!