নারী অবহেলার শেষ কোথায়

নারী অবহেলার শেষ কোথায়

একের পর এক ধর্ষনের স্বীকার হচ্ছে দেশের অবহেলিত নারী সমাজ। দেখে মনে হচ্ছে নারীরা এখন ভোগ বিলাসের পন্যতে পরিনিত হয়েছে।

তবে একজন নারী শুধুমাত্র নারীই্ নন, সে হতে পারে কারো বোন বা হতে পারো কোন সন্তানের মা। আমাদের সমাজে বর্তমান অবস্থা এমন হয়ে দাড়িয়েছে, যে নারীকে পুতুলের মত করে ব্যবহার করা হচ্ছে। ।

 

সাম্প্রতিক সময় দেখা গেল রাজধানীর বনানীর ‘দ্য রেইন ট্রি’ হোটেলে দুই তরুণী ধর্ষন করে  সাফায়াত ও নাঈম

পুলিশ তাদের গ্রেফতারের পর জেলখানায় নিয়ে গেলে বের হয়ে আসে একের পর এক অজানা তথ্য।

যার ফলে দেখা দিচ্ছে নানা রকম বিচ্ছিন্ন ঘটনা। তারপর দেখা যায় কিছু কিছু মহল তাদের কে নিয়ে নানা রকম কথা বলতে থাকে।

আর বিষয়টি নিয়ে সাধারণ জনগনের রয়েছে হাজারো প্রশ্ন।

তার বড় কারনটা হলো প্রায় সময় ই  অপারাধীদের ধরা হচ্ছে ঠিক ই কিন্তু প্রভাবশালী মহলের কারনে শেষ পর্যন্ত সঠিক বিচারের মুখ দেখা যায় না।

আর সে দিক থেকে চিন্তা করলে দেখতে পাওয়া যায় একের পর এক ধর্ষন হচ্ছে আমাদের সমাজে।

যা প্রশাসনের নাকের ডগা দিয়েই চলছে।  সঠিক বিচার না হবার কারনে অবহেলিতই থেকে যাচ্ছে নারীরা ।

এর জন্য  আমাদের দেশের জনগণ বড় দায়ী মনে করছেন আমাদের দেশের বিচার ব্যবস্থাকে।

বনানীর দুই ধর্ষন মামালটি দিকে চোখ এখন সবার। দেশের সাধারন জনগন চেয়ে বসে আছে,

এবার বিচার ব্যবস্থা কি হয় তা দেখার জন্য।

তবে এরই মাঝে একের পর এক তথ্য বেড়িয়ে আসছে আমাদের মাঝে। ধর্ষনকারীরা জেলে গিয়ে জামাই আদরে থাকতে চায় বলে জানা গেছে।

অার তার ফলে সাধারণ জনগন অনেকটা চিন্তার মধে রয়েছে।কারন তারা সুষ্ঠ বিচার কি অাদৌ পাবে অামাদের বিচার বিভাগ থেকে?

 

এই ক্ষেত্রে সমাজ বিশেষঞ্জরা বলছেন, কে কত প্রভাবশালী সে দিক থেকে বিচার না করে অপরাধী যেই হোক না কেন সুষ্ঠ বিচার করে তাকে শাস্তি দিলে দেশে ধর্ষন অনেকটা কমে যাবে।

তবে অাবার কেউ কেউ পরিবার কে পুরোটা দায়ী করছে। তার বড় কারন হল সাফায়েত এর বাবার জন্য।সে ছেলের কু -কর্ম কে

সমর্থন করে একের পর এক বক্তব্য দিচ্ছে।

নারী অবহেলা রোধে করনীয়:

ধর্ষনরোধে সচেতন হতে হবে আমাদের দেশের পুরো সমাজকে।

আইনের শাষন আরো কঠোর হতে হবে। মেয়েদের আরো সাবধান হতে হবে।

দেশ জাতি ও সমাজ সবার সচেতনতা ও একত্রিত পদক্ষেপ ্ই রোধ করতে পারে ধর্ষনকে।

ভালো থাকুক এ দেশের মায়ের জাতিরা, নিরাপদ থাকুক এ দেশের সকল বোন।

সানমুন আহমেদ।

নিউজ ঢাকা ২৪ ডটকম।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

গাইবান্ধা পৌরসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী ৮ মেয়র প্রার্থী

  মো:শামসুর রহমান হৃদয়,গাইবান্ধা প্রতিনিধি:গাইবান্ধার পৌরসভার নির্বাচন ১৬ ই জানুয়ারি শনিবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৮ জন …

error: Content is protected !!