অস্ট্রেলিয়া টিমের বাংলাদেশ সফরের সম্ভাবনা ইতিবাচক

অস্ট্রেলিয়া টিমের বাংলাদেশ সফরের সম্ভাবনা ইতিবাচক

অস্ট্রেলিয়া টিমের নিরাপত্তা প্রধানের বাংলাদেশ সফর ঃ

অস্ট্রেলিয়া টিমের চলতি বছরের বাংলাদেশ সফরের সম্ভাবনা অনেকটাই ইতিবাচক।  অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা বিষয়ক প্রধান শন ক্যারলের ৩ দিনের সফর শেষে এমনটাই মনে করছেন ক্রিকেটের হর্তাকর্তারা।

নিরাপত্তার কারনে টানা দুই বছর পিছিয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়া টিমের বাংলাদেশ সফর। চলতি বছরে নতুন করে কথাবার্তার শুরুর পর আর কোন জটিলতা চায় না বিসিবি।

তাই সাধারণত কোনো রাষ্ট্রপ্রধান বাংলাদেশ সফর করলে যে ধরনের নিরাপত্তা দেওয়া হয়, অস্ট্রেলিয়া টিমের জন্য ও সেই ধরনের নিরাপত্তাব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নাজিমুদ্দিন চৌধুরী।

আগামী আগষ্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে দুই ম্যাচের টেষ্ট সিরিজ খেলতে আসার কথা অস্ট্রেলিয়া টিমের। তার আগে নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য ঢাকা এসেছেন অস্ট্রেলিয়া টিমের নিরাপত্তাবিষয়ক প্রধান শন ক্যারল।

বাংলাদেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সন্তুষ্টিও প্রকাশ করেছেন ক্যারেল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশপ্রধানের সঙ্গে সাক্ষাৎ ছাড়াও ক্যারেল র‌্যাব ও গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। গিয়েছেন মিরপুর মাঠে। সেখানে একে একে সব পর্যবেক্ষন করে দেখেছেন তিনি।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী তাঁকে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে দেখিয়েছেন অতিথি দলের ড্রেসিংরুম, ক্রিকেটারদের বসার জায়গা ও মেডিকেল রুম। সব কিছু দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।

ক্যারলের এ সফরের পর বিসিবির প্রধান নির্বাহী নাজিমুদ্দিন চৌধুরী বলেছেন,রাষ্ট্রপ্রধানরা বাংলাদেশ সফরে এলে যে ধরনের নিরাপত্তা হয়েছিল, ঠিক তেমনটাই দেওয়া হবে অষ্টেলিয়া টিম কে। এর বাইরেও যদি বাড়তি কোনো চাহিদা থাকে, তাহলে আমরা সেটারও ব্যবস্থা করব।

২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে আসার কথা ছিলো অষ্টেলিয়া টিমের। কিন্তু গুলশানের হলিজান হোটেলে জঙ্গি হামলার কারনে আসেনি তারা। গত বছর যুব ১৯ বিশ্বকাপ খেলতেও আসেনি অস্ট্রেলিয়া যুবদলের খেলোয়াররা।

তবে গত বছরের শেষদিকে ইংল্যান্ড টিমের বাংলাদেশ সফর করায় নিরাপত্তা-সংক্রান্ত রেশ কেটে গিয়েছিলো অনেকটাই। সে সময়ও বাংলাদেশে এসেছিলেন অস্ট্রেলিয়া টিমের  নিরাপত্তা বিষয়ক প্রধান শন ক্যারল। এবার সফর শেষে তিনি বলেন আমরা বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষ ও বিসিবির সঙ্গে কাজ করছি, আগামী আগস্টে একটা সফল সফরের ব্যাপারে।

টাইগারদের ব্যস্ত সময় সূচী:

উল্লেখ্য এ বছর জুড়েই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের একটার পর একটা খেলা চলছেই। থেমে নেই জাতীয় দলের খেলোয়াররা। চলছে ত্রিদেশীয় সিরিজ এর পর পরেই আইসিসি চ্যাম্পিয়নস ট্রফি

কিন্তু তারপরেো থেমে থাকবে না টাইগার বাহিনী। ট্রফি শেষ হবার পর পরই নিজেদের মাটিতে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলবে বাংলাদেশ।

 

নাফিউল ইসলাম অপু।

নিউজ ঢাকা টুয়েন্টিফোর ডটকম।

১৮/০৫/১৭ ।

 

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

দৌলতদিয়ায় যৌনকর্মীদের পাশে জেসিআই ঢাকা ইয়াং

মোঃ মাসুদ রাজবাড়ী জেলার দৌলতদিয়ার যৌনপল্লীতে যৌন কর্মীদের মাঝে প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য এবং স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা …

15 comments

  1. It’s an remarkable paragraph for all the internet users; they will obtain benefit from it I am sure.|

  2. immaculate article, i love it

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!