গৃহবধুর লাশ

কেরানীগঞ্জ বিয়ের চার বছরেও সন্তান না হওয়ায় স্বামীর সাথে অভিমান করে স্ত্রীর আত্মহত্যা

এ.এইচ.এম সাগর- ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন হযরতপুর ইউনিয়নেরজগন্নাথপুর এলাকা সেলিনা নামের এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধারকরেছে থানা পুলিশ। তার বাবার নাম মোঃ মোস্তফা। তার গ্রামেরবাড়ি একই ইউনিয়নের দক্ষিন বালুরচর এরঅকায়।

চার বছর পূর্বে জগন্নাথপুর এলাকার আলম মোল্লার সাথে শরিয়ত মোতাবেকতাদের বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের চার বছরেও সেলিনার গর্ভে কোনসন্তান না আসায় স্বামীর সাথে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ হয়।ঘটনার দিন শুক্রবার সন্ধ্যার পরও এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর সাথে ঝগড়াহয়। এক পর্যায়ে স্বামী আলম মোল্লা ঘুমিয়ে গেলে রাত ১১টায় নিজ রুমে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূ সেলিনাআত্মহত্যা করেছে।

সেহেরীর সময় স্বামী আলম মোল্লা ঘুমথেকে জেগে উঠলে স্ত্রী সেলিনাকে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায়দেখতে পেয়ে বাড়ির ও আশেপাশের লোকজনদেও ডাকতে থাকেন।

পরেএলাকাবাসি থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ শনিবার সকালে ঘটনাস্থলে পৌছে গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার কওে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করে ময়না তদন্তের জন্য লাশ স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

মডেল থানার এস আই সাইদুজ্জামান জানান, চার বছর পূর্বে হযরতপুর দক্ষিণ বালুরচর এলাকার মোস্তফার মেয়ে সেলিনার সাথে পাশের গ্রাম জগন্নাথপুর এলাকার বাসিন্দা আলমের সাথে বিয়েহয়।

কিন্তু বিয়ের চার বছরেও কোন সন্তান না হওয়ায় স্বামী-স্ত্রীরসাথে বিভিন্নœ সময় ঝগড়া হতো। বাড়ির লোকজনের সাথেকথা বলে জানা গেছে শুক্রবার সন্ধ্যার পরও স্বামী-স্ত্রীর সাথে এনিয়ে ঝগড়া হয়। পরে রাতে কোন এক সময় ঘর ফাঁকা পেয়ে মাহতে না পারায় স্বামীর সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা।

নিউজ ঢাকা

আরো পড়ুন,কেরানীগঞ্জে মোবাইল ব্যাংকিং অপব্যবহার রোধে এজেন্টদের নিয়ে থানা পুলিশের সমন্বয় সভা

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

Check Also

করোনায় থাবায় ঘুড়ে দাড়াতে পারছে না কেরানীগঞ্জের কম্পিউটার এমব্রয়ডারী ব্যবসায়ীরা

দক্ষিন এশিয়ার সর্ববৃহৎ গার্মেন্টস পল্লী অবস্থিত কেরানীগঞ্জের কালিগঞ্জ এলাকায়। কম্পিউটার এমব্রয়ডারী ব্যবসা এই গার্মেন্টস পল্লীর …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!