মারিশবনিয়ার মাহমুদুল হক মুক্তিপণ প্রদান করেই ফিরছে!

আজিজ উল্লাহ, উপকূলীয় প্রতিনিধি :

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় মারিশবনিয়ার পাহাড় থেকে মাহমুদুল হক (৩০) নামের এক যুবককে অপহরণের তিন দিন ২০ হাজার টাকা মুক্তিপণে ফিরিয়ে দিয়েছে অপহরণ চক্রের সদস্যরা। এসময় তার শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

জানা যায়, বুধবার ( ১০ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৪ টার দিকে মারিশবনিয়া গহীন পাহাড় থেকে তাকে নিয়ে আসেন তার মা শামসুন্নাহার। এসময় পুলিশের উপস্থিতি ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, গতকাল শনিবার সকালে উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের মারিষবনিয়া পাহাড়ে কঞ্চি কাটতে গিয়ে ওই যুবক অপহরণের শিকার হন। ঘটনার ২৪ ঘণ্টা পর মুঠোফোনে ওই যুবকের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ হিসেবে ২০ লাখ টাকা দাবি করা হয়েছিল। অবশেষে ২০ হাজার টাকায় ফিরে দিয়েছে অপহরণ চক্রের সদস্যরা।
অপহৃত মাহমুদুল হক উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের মারিষবনিয়া গ্রামের আলী আহমদের ছেলে। স্বজনদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরে পাহাড়ে থাকা রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা টাকার জন্য স্থানীয় লোকজনকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় করে। পরে আজকে মাহমুদুলকে মুক্তিপণ প্রদান করেই ফিরে আসছেন।

বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ফরিদ উল্লাহ তাকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এলাকার বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে ৫০ টাকা ১শ টাকা করে চাঁদা করে ২০ হাজার টাকা মুক্তিপণ আদায় করে এবং প্রশাসনের তৎপরতায় সন্ত্রাসী অপহরণ চক্রের সদস্যরা ফিরিয়ে দিয়েছে। ‘

ফিরে আসা মাহমুদুল হক বলেন,” তাকে প্রথমে তিন লোক গহীন পাহাড়ের ভিতর থেকে থেকে ধরে নিয়ে যায়। পরে ক্যাম্পের আসপাশে রাখা হয়েছে। পরে এদের সংখ্যা বেড়ে অন্তত ২০ জনের অধিক অস্ত্রধারী একটি দল দেখতে পায়। তাদের হাতে রয়েছে বিভিন্ন অস্ত্র।”

গত সাড়ে ৯ মাসে টেকনাফের বিভিন্ন এলাকা থেকে ৮৭ জনকে অপহরণের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে ৪৩ জন স্থানীয় বাসিন্দা, বাকি ৪৪ জন রোহিঙ্গা। অপহরণের শিকার ব্যক্তিদের মধ্যে অন্তত ৩৯ জন মুক্তিপণ দিয়ে ছাড়া পেয়েছেন বলে ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

নাটোর-১ আসনে মনোনয়ন পত্র কিনেছেন ২২ জন!

লালপুর (নাটোর) প্রতিনিধি: নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া) আসনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাশীল আওয়ামী লীগ ও ১৪ …

error: Content is protected !!