বাংলাদেশের জনগন ভেক্সিন লাভিং পিপল : সিনিয়র স্বাস্থ্য সচিব

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের  স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সিনিয়র স্বাস্থ্য সচিব লোকমান হোসেন মিয়া বলেছেন, আমাদের দেশের জনগন ভেক্সিন লাভিং পিপল। আমেরিকা কানাডার  মতো দেশে জনগন টিকা না নেয়ার জন্য পার্লামেন্ট ঘেড়াও করে রেছেছে। টিকা না নেয়ার জন্য মিছিল মিটিং করছে। আর দেশের সব মানুষরাই টিকা নেয়ার পক্ষে। টিকা নেয়ার কারনে আমরা অন্যান্য দেশের চেয়ে ভালো আছি। ২৮ মার্চ সোমবার কেরানীগঞ্জের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গনটিকা কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্য সচিব আরো বলেন, জাতির পিতা জন্মশত বার্ষিকী হিসাবে ১৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত বিশেষ টিকা কার্যক্রম গ্রহন করা হয়েছে। সেখানে আমাদের টার্গেট প্রায় সাড়ে তিন কোটি টিকা দেওয়া। গত ফেব্রুয়ারী মাসে ১ দিনে ১ কোটি ২০ লাখ পয়ষট্টি হাজার টিকা দেয়া হয়েছে প্রথম ডোজের। আমাদের এবারের লক্ষ প্রথম দ্বিতীয় ও বুষ্টার ডোজ মিলিয়ে সাড়ে তিন কোটি ডোজ টিকা দেয়া। পুরো বাংলাদেশে সকলের সাথে আমরা এ বিষয়ে কথা বলেছি। এ টিকা কার্যক্রমকে শতভাগ কার্যকর করার জন্য সকলের সহায়তা কামনা করছি। এর আগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে একদিনে আমরা ৮০ লাখ টিকা দিয়েছি। পৃথিবীর কোন দেশ আমাদের ধারে কাছে আসতে পারে নি। টিকা দেয়ার এতো অগ্রগতি দেখে বহিবিশ্বের বিভিন্ন সংস্থা আমাদের ভূয়সী প্রশংসা করেছে। আমরা পৃথীবির মধ্যে টিকা ব্যবস্থায় দশম এবং এশিয়ার মধ্যে ১ নাম্বার হয়েছি। দেশের সকলের সহযোগীতায় এটা সম্ভব হয়েছে।

তিনি আরো বলেন টিকা দেয়াটা চলমান প্রসেস।  মূলত গনটিকার আয়োজন করা হয়েছে জনগনকে উৎসাহিত করার জন্য। গনটিকা কার্যক্রমের পরেও টিকা দেয়া কার্যক্রম চলমান থাকবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতায় ও তার সঠিক নির্দেশনায় আমরা ২১ কোটি ভেক্সিন নিজেদের টাকায় কিনেছি। কোভেক্স ও বাইলেটারারের মাধ্যমে আমরা প্রায় ১২ থেকে ১৩ কোটি ভেক্সিন পেয়েছি। আমাদের  কোটি ভেক্সিন মজুদ আছে । আরো ভেক্সিন পাইপ লাইনে আছে। ভেক্সিনের কোন সমস্যা নাই।

আজকে আমার ভেক্সিনে সফল হয়েছি এর একমাত্র কারন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উনার দূরদৃষ্টি ও যথা সময়ে যথা সিন্ধান্ত দিয়ে উনি সার্বক্ষনিক ভাবে ভেক্সিন কার্যক্রম মনিটরিং করেছে।  দেশের সকল পর্যায়ের মানুষের সাথে উনি কথা বলেছে। ভেক্সিন কেনার জন্য আমরা ১৯ হাজার ৫শ ছিচল্লিশ কোটি টাকা পেয়েছি। তার সঠিক নেতৃত্বে আমর ফাইজার মর্ডানা, এস্টোজনার মতো টিকা বিনা মূল্যে উপহার পেয়েছি। টাকার অংকে যা ১৮-২০ হাজার কোটি টাকা। আমরা সবচেয়ে ভাগ্যবান তার মতো একজন দক্ষ ও যোগ্য প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি। স্কুল পর্যায়ে ১ কোটি ৮০ লাখ ছেলে মেয়েদের টিকা দেয়া হয়েছে। যাদের সনদ দরকার, সুরক্ষা  এপ থেকে নিয়া নিবেন।

গনটিকা কার্যক্রম পরিদর্শনে এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা, সিভিল সার্জেন ডা: আবু হোসেন মো: মইনুল আহসান, ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কাজী হাফিজুল আমিন, কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেহেদী হাসান, কেরানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা: মশিউর রহমানসহ প্রমুখ। #ইব

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে [sharethis-inline-buttons]

Check Also

ভেলোর সিএমসি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য কি ভাবে কি করবেন ?

আমাদের দেশের ডাক্তারদের উপর জনগন আস্থা হারিয়ে ফেলছে, উন্নত চিকিৎসার জন্য এখন আমরা ছুটি পাশ্ববর্তী …

error: Content is protected !!